• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০ | ১৫ ফাল্গুন, ১৪২৬

আওয়ামী লীগের ২১-তম সম্মেলন, প্রত্যাশা এবং বাস্তবতা

আওয়ামী লীগের ২১-তম সম্মেলন, প্রত্যাশা এবং বাস্তবতা

মোঃ হেদায়েত উল্লাহ তুর্কী : আনন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২১-তম জাতীয় সম্মেলন। টানা তৃতীয়বার ক্ষমতাসীনদল হিসেবে আওয়ামী লীগের সম্মেলন নিয়ে নেতা-কর্মীদের ছিলো অন্যরকম প্রত্যাশা। সম্মেলনে সভাপতি হিসেবে টানা নবম বারের মতো শেখ হাসিনা এবং দ্বিতীয়বারের মতো সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন ওবায়দুল কাদের। সভাপতি এবং সাধারন সম্পাদক পদে পরিবর্তন না হওয়ার আভাস পূর্বেই অনুমান করেছিলেন দলটির নেতাকর্মীসহ দেশের রাজনৈতিক সচেতন মহল।

নেতাকর্মীদের অনেকেই প্রত্যাশা করেছিলেন এবারের সম্মেলনে দল ও সরকারকে পৃথক করা হবে এবং নতুন মুখ আসবে বিভিন্ন পদে। কিন্তু সম্মেলন শেষে দেখাগেল পুরানো নেতৃত্বই নতুনকরে অদল বদল করা হলো। শেখ হাসিনা প্রতিটি সম্মেলনেই একটা চমক দেখান। এবারের সম্মেলনে সবচেয়ে বড় চমকছিলো আলোচিত-সমালোচিত শাহাজাহান খাঁন এমপি’র প্রেসিডিয়াম সদস্য হওয়া এবং সাধারন সম্পাদক পদে আলোচিত নাম খালিদ মাহমদু চৌধুরী এমপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক পদ থেকে বাদ পড়া।

এইমুহুর্তে দলের সভাপতি শেখ হাসিনার সবচেয়ে বিশ্বস্ত ও আস্থাভাজন ওবায়দুল কাদের দলের সাধারন সম্পাদক পদে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন নানা মেরুকরণে, সম্মেলনে সাধারন সম্পাদক হিসেবে যাদের নাম আলোচিত হয়েছিলো তারা হলেন দলের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, ডাঃ দীপু মনি, আব্দুর রহমান এবং খালেদ মাহমুদ চৌধুরী তাদের অন্যতম। তাঁরা প্রত্যেকেই কর্মদক্ষ, বিশ্বস্ত এবং আস্থাভাজন হলেও অভিজ্ঞতা, কৌশল এবং ক্যারিশম্যাটিক নেতৃত্বর কারনে সাধারন সম্পাদক পদে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন ওবায়দুল কাদের। বাংলাদেশের দুর্নীতিময় একটা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হয়েও শুধুমাত্র নেতৃত্বগুনে তিনিই সম্ভবত বাংলাদেশের এইমুহুর্তে সবচেয়ে জনপ্রিয় মন্ত্রীদের একজন। কিছুদিন পূর্বে তিনি শারিরিকভাবে চরম অসুস্থতা থেকে ফিরে এসে দলকে সংগঠিত করার আপ্রাণচেষ্ঠার পাশাপাশি বিরোধীদলের নেতাদের বিভিন্ন আলোচনা-সমালোচনার জবাব দিয়েছেন শক্তভাবে, এছাড়া একমাত্র তিনিই দেশের প্রতিটি ইউনিটকে ভালো করে চেনেন এবং জানেন, তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি থেকে আজ পর্যন্ত সবসময় মাঠে থেকে রাজনীতি করেছেন। হয়তো এসব কারনেই তিনি শেখ হাসিনার পাশাপাশি দলেনর নেতাকর্মীদের আস্থাঅর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। পক্ষান্তরে অন্য পদপ্রত্যাশীরা এসব বিষয়ে অনেক পিছিয়ে ছিলেন।

প্রেসিডিয়াম সদস্য পদ লাভ করেছেন দলের দুই যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আব্দুর রহমান এবং জাহাঙ্গীর কবির নানাক। দুজনেই ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক। বিগত জাতীয় নির্বাচনে দুজনেই মনোনয়ন বঞ্চিত হয়েও দলের পক্ষে কাজ করেছেন নিরলসভাবে। দলের প্রতি আনুগত্যর কারনেই বলা চলে দুজনের ঠাই হয়েছে দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারক ফোরাম প্রেসিডিয়ামে। অভিজ্ঞতা, বয়স এবং কর্মদক্ষতায় এদুজনই সার্বক্ষনিক সভাপতি শেখ হাসিনার পাশে থাকবে বলে মনে হচ্ছে । প্রেসিডিয়াম সদস্যদের অধিকাংশই বয়সের ভারে ক্লান্ত হলেও এদ্জুন থাকবে অফুরান্ত দম নিয়ে। দল গোছানো থেকে শুরু করে দলীয় সিদ্ধান্তে রাখবেন গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা এটাই দলীয় নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা।

দলের যুগ্মসাধারন সম্পাদক পদে পুনঃনির্বাচিত মাহাবুবুল -আলম হানিফ, ডাঃ দীপু মনিরা যে কোন সময় দলের প্রয়োজনে সাধারন সম্পাদক পদে দায়িত্বপালন করার যোগ্যতা রাখেন। দলের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক পদটি সবসময় এমন নেতাদেরকে দেওয়া হয় যারা বিরোধীদলের নেতাদের বিভিন্ন অভিযোগ খন্ডন করতে পারেন, গলা উচিয়ে বক্তব্য প্রদান করতে পারেন, দলের প্রয়োজনে বড় বড় দায়িত্ব কর্তব্যর সাথে পালন করতে পারেন। মাহবুবুল আলম হানিফ প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী, সংসদ সদস্য এবং দলের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক হিসেবে বিভিন্ন সময়ে দায়িত্বপালন করে এটা অর্জন করেছেন। সজ্জ্বন ব্যক্তি হিসেবে পরিচিত ডাঃ দিপু মনি দল এবং মন্ত্রণালয় সামলাচ্ছেন সমানতালে। বিভিন্ন সভা-সেমিনার, মঞ্চে অনলবর্ষি বক্তা হিসেবে দক্ষতার পরিচয় দিয়ে যুগ্ম সাধরন সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন ড. হাছান মাহমুদ এবং বাহাউদ্দিন নাছিম।

সাংগঠনিক সম্পাদক পদে এস এম কামাল এর নাম অনেকটাই প্রত্যাশিত ছিলো। তিনি দীর্ঘদিন যাবত দলের জন্য নিবেদিত হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনিই সম্ভবত একমাত্র নেতা যিনি ক্ষমতা বা সরকারের উচ্চ পদে না থেকেও দলকে সংগঠিত করার জন্য সারাবছর সাংগঠনিক কাজে ব্যস্ত থাকেন। নতুন সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম দেশের এবং দলের একজন পরিক্ষিত সংগঠক। তিনি যুবলীগের দায়িত্বে থাকাকালীন সময়ে দলকে সংগঠিত করতে সক্ষম হয়েছিলেন। পুরানো সাংগঠনিক সম্পাদকদের কর্মদক্ষতা নিয়ে কারো কোন দ্বিমত থাকার কথা না।

প্রচার ও প্রকাশনায় দায়িত্বপ্রাপ্ত আব্দুস সোবহান গোলাপ সবসময় দলীয় পার্টি অফিস আগলে রাখেন। তিনি সবচেয়ে বেশী সময় অতিবাহিত করেন দলীয় প্রধানের কার্যালয়ে। উপ-দপ্তর সম্পাদক থেকে দপ্তর সম্পাদক পদে ব্যরিস্টার বিপ্লব বড়–য়াকে নিয়ে কারো কোন প্রশ্ন নেই। সম্পাদক মন্ডলীদের মধ্যে সবচেয়ে বেশী সক্রিয় ছিলেন বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন। তিনি সারাবছরই বিভিন্ন কর্মসুচী নিয়ে মাঠে ছিলেন, আয়োজন করেছেন দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক সেমিনার। সরকারের বাইরে থেকে একজন তরুন রাজনীতিবিদ হিসেবে যা দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা সহ নজর কেড়েছেন সকল নেতাকর্মীদের। তাইতো পুনরায় স্বপদে বহাল থেকেছেন। সদস্য থেকে আইন বিষয়ক সম্পাদক পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত কাজী নজিবুল্লাহ হিরু আইন অঙ্গনের জনপ্রিয় মুখ। তিনি ঢাকা বারের সাধারন সম্পাদক এবং সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। জগন্নাথ কলেজ থেকে বেড়ে উঠা নেতৃত্ব রাজপথে সবসময় সক্রিয় থেকেছেন।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, শ ম রেজাউল করিম, এনামুল হক শামীম সহ যারা দল থেকে বাদ পড়েছেন, বলা যায় তাদেরকে সরকারে মনোযোগ বৃদ্ধি করার জন্য পদ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তাদের কর্মদক্ষতা, যোগ্যতা ও দলীয় কর্মকান্ড নিয়ে কোন কিছু ভাবনার অবকাশ নেই। দলের সাথে সাথে সরকারকেও শক্তিশালী করার জন্য সভাপতি শেখ হাসিনার এই উদ্দ্যোগ বলে মনে করা হচ্ছে । কারণ বাদ পড়া চারজনই সরকারের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

পুরানো পদে যাঁরা পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন কিংবা নতুন করে পদ পেয়েছেন সবারই দক্ষতা, সততা এবং যোগ্যতা নিয়ে কোন প্রশ্ন নেই দলীয় নেতাকর্মীদের। তবে তাদের প্রত্যাশা বাকী পদ গুলিতে যেন তৃণমূলের পোড় খাওয়া নেতা এবং সাবেক ছাত্রনেতাদের দিয়ে পুরন করা হয়। তাহলে নবীন-প্রবীনের সমন্বয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ হয়ে উঠবে সতের কোটি মানুষের আশা আকাঙ্খার দল। মিলন ঘটবে প্রত্যাশা এবং বাস্তবতার ।

লেখক :

মোঃ হেদায়েত উল্লাহ তুর্কী

সহকারী রেজিস্ট্রার, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা

সাইনবোর্ডে বাংলা ভাষা নিশ্চি.....

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) উদ্যোগে আজ বেলা এগারটা থেকে দুইটা পর্যন্ত রাজধানী.....

শাজাহান খানের মামলা প্রত্যাহ.....

লাখোকণ্ঠ অনলাইন : বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শাজাহান খানের বিরুদ্ধে অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্.....

মুজিববর্ষ পালনের নামে চাঁদাব.....

ফাইল ছবি

লাখোকণ্ঠ অনলাইন : অল্প কিছুদিন পরেই মুজিববর্ষ পালন করা হবে। এই মুজিববর্ষ পালন করতে গিয়ে কোনো ধরন.....

নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সা.....

লাখোকণ্ঠ অনলাইন : বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, এমপি বলেছেন, নেপাল বাংলাদেশের বন্ধু রাষ্ট্র। নেপালের সাথে ফ্রি.....

খালেদার প্যারোল বিষয়ে আইন অনু.....

লাখোকণ্ঠ অনলাইন : আইনমন্ত্রী আনিসুল হক জানিয়েছেন, সুনির্দিষ্টভাবে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদনের পরই বেগম .....

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ক.....

স্টাফ রিপোর্টার : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘সারাদেশের সব শহীদ মিনার এবং সব গুরুত্বপ.....

মুজিববর্ষের শ্রেষ্ঠ উপহার থা.....

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা : মুজিববর্ষের শ্রেষ্ঠ উপহার থাকবে বিশ্বকাপ জয়ী বাংলাদেশী টাইগারযুবাদের। দেশে ফিরলে ত.....

বিশ্বমানের সশস্ত্র বাহিনী গড়.....

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা : আধুনিক বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে দেশের সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তোলা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্.....

পরীক্ষা নিয়ে গুজব ছড়ালে কাউকে .....

লাখোকণ্ঠ অনলাইন : সোমবার ( ৩ ফেব্রুয়ারি  ) সকালে রাজধানীর তেজগাঁও সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর.....

ভেজাল দেবো না, ভেজাল খাবো না, কা.....

ওয়াসিম এমদাদ : গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি বলেছেন, "আমি নিজে ভেজ.....

৯৯৯ নম্বরে এক বছরে দুই কোটি কল .....

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট : রোববার দুপুরে সিলেট পুলিশ লাইন্সে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ও অস্ত্রাগারের উদ্ব.....

বিমান ছিনতাই চেষ্টার মামলার চ.....

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা থেকে রওনা হয়ে মাঝ আকাশে বিমান ছিনতাইচেষ্টার মামলাটির চূড়ান্ত প্রতিবেদন আদালতে জমা দি.....