• ঢাকা
  • রবিবার, ০৫ Jul ২০২০ | ২১ আষাঢ়, ১৪২৭

রংপুরে ব্যবসায়ীর পৈতিক জমি জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ

রংপুর ব্যুরো :রংপুর জেলার মিঠাপুকুরের ময়েনপুর ইউনিয়নের গেনারপাড়া মৌজার মৃত আবুলকালাম আজাদ নামে এক মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের বিরুদ্ধে স্থানীয় এক অসহায়ব্যবসায়ীর পৈতিক জমি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। প্রকৃতমুক্তিযোদ্ধা পরিবারের কেউ না হয়েও সাধারণ মানুষের অনুভূতি আদায়ের জন্য মৃতসোলায়মান শাহের সন্তানরাসহ ওয়ারিশগণ নিজেদেরকে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারেরসদস্য দাবি করে মিথ্যা মামলা ও হামলা করে হয়রানি করে যাচ্ছেন। গতকাল দুপুরেরংপুর রিপোর্টার্স ক্লাব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ তুলেপ্রশাসনের মাধ্যমে ন্যায় বিচার পাওয়ার দাবি জানান ভূক্তভোগি বাদল মিয়া।সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য তিনি বলেন, পশ্চিম গেনারপাড়া মৌজায় মৃতসোলায়মান শাহের ওয়ারিশগন১০ সেপ্টেম্বর ঢাকা থেকে প্রকাশিত একটি দৈনিক পত্রিকাতে সাংবাদিককেভূয়া বানোয়াট তথ্য দিয়ে নিজেদেরকে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য উল্লেখ করেনমৃত সোলায়মান শাহের ওয়ারিশরা। তারা আমার পিতার পৈত্রিক জমি জমা দখলেরচেষ্টার কথা আড়াল করে সঠিক উল্টো আমাদেরকে জড়িয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রচারকরিয়েছেন। যা মূলত নিজেদের অপরাধ ঢাকতে একটি অপচেষ্টা ছাড়া আর কিছুনয়।তিনি আরো জানান, মৃত সোলায়মান শাহ পৈত্রিকভাবে পশ্চিম গেনারপাড়ামৌজায় ১৫৩ ও ১৬৪ খতিয়ানে তিন দাগে যে ৫৬ শতক জমির মালিকানাপেয়েছিলেন তার মধ্যে থেকে সোলায়মান শাহ জীবিত থাকাকালীন আপন ভাইআবুল হায়াৎ এর নিকট ১৯৬০ সালে ২১৩০২ দলিল মূলে ৮৬০ দাগে ২৩ শতক জমিবিক্রি করে। ১৯৬৪ সালে কিনু সর্দার ছেলে সোলয়মানের সর্দারের নিকট২৫/০৭/১৯৬৪ ইং তারিখে ১৯২৯৯ দলিল মূলে ৭৫২ দাগে ১৯ শতক জমি মোট ৪২ শতকজমি বিক্রি করে। এরপর তার অবশিষ্ট ১৪ শতক জমি ১৪৮০ দাগে সোলায়মান শাহেরনামে রেকর্ড হয়। সে জমি সোলায়মান শাহের মৃত্যুর পর তার ওয়ারিশগন ভোগ দখলকরে আসছে। ৫৬ শতক জমি বুঝিয়া পাওয়ার পরেও এখন সোলায়মানের ওয়ারিশগনতার বাবার বিক্রিত জমি নিজেদের দাবি করে আমাদের ভোগদখলকৃত জমি জবর দখরকরার চেষ্ঠা করে যাচ্ছেন। সোলায়মান শাহের পরিবারবর্গ এবং ওয়ারিশগণ যেভাবেজমি দখলের চেষ্টায় একের পর এক ঘটনা ঘটিয়ে যাচ্ছেন, তাতে করে আমরানিজেদেরজমিতে যেতে না পেরে শঙ্কিত। এজন্য পুলিশ প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকলের

‘খয়রাতি’ শব্দের ব্যবহার ছোট ম.....

  নিজস্ব প্রতিবেদক: সম্প্রতি বাংলাদেশের পণ্যে চীন সরকারের দেয়া শুল্কমুক্ত সুবিধাকে ভারতীয় বিভিন্ন .....

সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহা.....

লাখোকণ্ঠ ডেস্ক : আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন এমপি অসুস্থ হয়ে র.....

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ ম.....

নিজস্ব প্রতিবেদক: দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. মোহসীনকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্.....

চলতি মাসেই চালু হচ্ছে আন্তর্জ.....

লাখোকণ্ঠ অনলাইন : করোনা সংকটে বন্ধ থাকা আন্তর্জাতিক রুটের আকাশপথ খুলছে চলতি মাসেই। চলতি মাসের তৃতীয় সপ্তায় .....

ডিএনসিসির চিরুনি অভিযানের তৃ.....

এডিস মশা নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে নগরবাসীকে ডেঙ্গু থেকে সুরক্ষা দিতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) সক.....

আহমদ শফীর শারীরিক অবস্থা স্থি.....

চট্টগ্রাম ব্যুরো : বার্ধক্যজনিত দূর্বলতা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্ত.....

মোঃ নাসিমের রোগমুক্তি কামনায় .....

সরিষাবাড়ি, জামালপুর সংবাদদাতাঃ জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্.....

গণপরিবহ‌নে অ‌তি‌রিক্ত যাত্রী.....

নিজস্ব প্রতিনিধি : গণপরিবহ‌নে অ‌তি‌রিক্ত ভাড়া আদায় এবং অ‌র্ধেক আসনের বেশি যাত্রী উঠা‌নো সং‌শ্লিষ্ট.....

প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব-.....

লাখোকণ্ঠ ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব-১ আশরাফুল আলম খোকনের পিতা মো. আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুতে গভীর শোক .....

ভার্চুয়াল শপথের পরে রাতে ফের শ.....

লাখোকণ্ঠ ডেস্ক : বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে স্থায়ী নিয়োগ পাওয়া ১৮ বিচারপতিকে দ্বিতীয় দফায় শপ.....

নাটোর উত্তরা গণভবনের ঐতিহাসি.....

    আমিরুল ইসলাম, নাটোর :  ঐতিহ্যবাহী নাটোরের উত্তরা গণভবনের ঘড়ির একটি আংশ ভেঙ্গে গেছে। ঘুর্ণিঝড় আমপানের.....

বসলো পদ্মা সেতুতে ৩০তম স্প্যা.....

শ্রীকান্ত দাস,মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি : সকল প্রতিকূলতা জয় করে স্বপ্নের পদ্মাসেতুর নির্মানকাজ প্রতিনিয়ত অগ্রস.....