• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ | ১ পৌষ, ১৪২৫

নাব্য সংকটে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে তিন মাস থেকে ফেরি চলাচলে বিপর্যয়

নাব্য সংকটে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে তিন মাস থেকে ফেরি চলাচলে বিপর্যয়

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি :রাজধানী ঢাকা ও দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার প্রধান সড়ক যোগাযোগের গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হচ্ছে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুট। এ নৌরুটে গত তিন মাস যাবত নাব্য সংকটের কারণে ফেরি চলাচলে বিপর্যয় দেখা দিয়েছে । এতে করে সরকার (বি আইডব্লিউটিসি) লক্ষ-লক্ষ টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এই সংকট নিরসনে ড্রেজিং কাজ অব্যাহত থাকলেও কোনো উপকারই হচ্ছে না। এ কারনে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে সচল থাকা ফেরি চলাচলে গুরুতর ব্যাঘাত সৃষ্টি হচ্ছে। আবার কখনও ঘণ্টার পর ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ, সীমিত সংখ্যক ফেরি এবং ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অর্ধেক যানবাহন নিয়ে পাড়ি দেওয়ায় সীমাহীন দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন সরকারি চাকরিজিবি যাত্রী ও পরিবহন চালক-শ্রমিকরা। সবচেয়ে বেশি ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে পণ্যবাহী ট্রাকচালক ও শ্রমিকদের। কয়েকদিন ধরে পারাপারের অপেক্ষায় থেকে ঘাট এলাকায় অলস সময় কাটাচ্ছেন তারা। এদিকে, নির্দিষ্ট সময়ে গন্তব্যে পৌঁছতে না পারায় পরিবহন খাত আর্থিক ক্ষতির শিকার হচ্ছে। এতে দেশের অর্থনীতিতেও বিরুপ প্রভাব পড়ছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।অনুসন্ধানে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রায় সময় সন্ধ্যার পর বন্ধ রাখার পর রোববার সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ছোট আকারের ৫টি ফেরি দিয়ে নৌরুট সচল করে বি আইডব্লিউটিসি। নাব্য সংকটের কারণে ফেরি সার্ভিস আবারও বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয় কর্তৃপক্ষ।

বি আইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া কার্যালয়ের কর্মকতা মো. জসিমউদ্দিন জানান, নাব্য সংকট এবং পদ্মায় প্রচন্ড ¯্রােত থাকার কারনে দুর্ঘটনা এড়াতে ফেরি সার্ভিস বন্ধ রাখতে হয়। ১৭টি ফেরির মধ্যে ছোট আকারের ৫টি ফেরি দিয়ে  নৌরুট সচল রাখার চেষ্টা করা হলেও ৪টি রো রো ফেরিসহ ১২টি ফেরি উভয়ঘাটে নোঙরে রাখতে হচ্ছে।তিনি আরো জানান, নাব্য সংকট নিরসনে বি আইডব্লিউটিএ'র ড্রেজিং কার্যক্রমকে সহযোগিতা করতে পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধানে সিনোহাইড্রোর ড্রেজার দিয়ে ড্রেজিং শুরু করা হবে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত শুক্রবার থেকে অত্যাধুনিক ড্রেজার দিয়ে চায়না চ্যানেলের এক প্রান্ত থেকে ড্রেজিং শুরু হয়েছে। সিনোহাইড্রো কোম্পানির ড্রেজিং কার্যক্রম শেষে কবে নাগাদ ফেরি চলাচলে চ্যানেল খুলে দেওয়া হবে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলেও জানিয়েছেন বি আইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া কার্যালয়ের এই কর্মকর্তা।

অনুসন্ধানে আরো জানা যায়, নৌরুটের ফেরিবহরে ৪টি রো রো ফেরিসহ ১৮টি ফেরি রয়েছে। প্রতিটি ফেরি দিয়ে প্রতিদিন দুই হাজার দুইশ গাড়ি পারাপার করা হতো। সাম্প্রতিক সময়ে নাব্য সংকটের কারণে সব ফেরি চলাচল করতে পারছে না। বিকেল ৫টার পর ফেরি সার্ভিস বন্ধ করে দেওয়া হয়। সর্বশেষ গত ২৪ সেপ্টেম্বর বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে নাব্য সংকটের কবলে পড়ে বন্ধ হয়ে যায় ফেরি সার্ভিস। অতিরিক্ত চাপ সামলাতে শিমুলিয়া ঘাট থেকে ৪টি ফেরি পাটুরিয়া ও চাঁদপুরে পাঠানো হয়। এছাড়া টানা তিন মাস ধরে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয় রাতে এবং দিনে ফেরি চলাচল সচল করার মধ্য দিয়েই নৌরুটে কার্যক্রম চলছিল বি আইডব্লিউটিসির।এ প্রসঙ্গে বি আইডব্লিউটিসির এজিএম সৈয়দ শাহ বরকতউল্লাহ জানান, লৌহজং চ্যানেলে নাব্য সংকটের কারণে তিন মাস ধরে ফেরি চলাচল ব্যাপকভাবে বিঘিœত হচ্ছিল। এ রুটে ডুবোচর জেগে ওঠায় একের পর এক আটকা পড়ে ফেরি। নদীর তলদেশের ডুবোচরের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে ফেরির তলা ফেটে দুর্ঘটনায়ও পড়েছিল একটি টানা ফেরি। এরপর থেকে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অর্ধেক যানবাহন নিয়ে ফেরি চলাচল করলেও গন্তব্যে পৌঁছতে সময় লেগেছে দেড় থেকে দুই ঘণ্টার বেশি। তিনি আরও জানান, জুন মাসের শেষ দিক থেকে বি আইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ একাধিক ড্রেজার দিয়ে ড্রেজিং করলেও উজানে ব্যাপক নদীভাঙনের ফলে স্রোতের তোড়ে ভেসে আসা অসংখ্য পলিমাটি জড়ো হয়ে নতুন নতুন ডুবোচরের সৃষ্টি হওয়ায় নাব্য সংকট রয়েই যায়। মুন্সীগঞ্জের লৌহজং চ্যানেলে কিছুটা নিরসন হলেও চায়না চ্যানেলে নাব্য সংকট রয়ে গেছে। সেখানে পানি একেবারেই কম। এ বিষয়ে জানতে চাইলে এই কর্মকর্তা বলেন, পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষের অত্যাধুনিক ড্রেজার দিয়ে ড্রেজিং শুরু হওয়ায় আশা করা যাচ্ছে, খুব শিগগিরই নাব্য সংকট নিরসন হয়ে যাবে।

বি আইডব্লিউটিএর ড্রেজিং বিভাগের অতিরিক্ত নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সাইদুর রহমান জানান, মুন্সীগঞ্জের লৌহজং টার্নিং পয়েন্ট ও বাইপাস চ্যানেলে ৯টি ড্রেজার দিয়ে পলি অপসারণ কাজ চলমান রয়েছে। গত জুন মাসের প্রথম সপ্তাহে শুরু হওয়া ড্রেজিং কার্যক্রমে চলতি মাস পর্যন্ত অপসারণ করা হয়েছে ১০ লাখ ঘনমিটার পলিমাটি। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে সর্বমোট ৩২ লাখ ঘনমিটার পলি অপসারণ করা হলে নাব্য সংকট নিরসন হবে। জরিপ কাজে কোনো অবহেলা বা গাফিলতি নেই। অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার পদ্মায় মাত্রাতিরিক্ত পলি জমেছে। তাই বি আইডব্লিউটিএর ড্রেজিংয়ে পলি অপসারণ করেও নাব্য সংকট দূর করা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানান বি আইডব্লিউটিএর ড্রেজিং বিভাগের অতিরিক্ত নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সাইদুর রহমান।

চাকরি সরকারিকরণের দাবিতে খুল.....

খুলনা ব্যুরো:চাকরি সরকারিকরণের দাবিতে খুলনা বিভাগের সরকারি কলেজের বেসরকারিকর্মচারী কল্যাণ পরিষদের উদ্যো.....

কুমিল্লায় দলীয় মনোনয়ন পেতে প্.....

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সারাদেশের নেয় কুমিল্লাতে ও চলছে নির্বাচনের প্রস্তুতি। নেতাকর্মীরা .....

জোট নেতাদের সম্পর্কে প্রধানম.....

যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, রোববার সংবাদ সম্মে.....

আবার অপদস্থ! .....

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এখন ট্রোল হওয়া ডালভাত হয়ে গেছে। বিশেষ করে বলিউড নায়িকাদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হামেশ.....

গোপালপুরে অগ্নিকান্ডে খামারস.....

গোপালপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের গোপালপুরে একটি গো-শালায় অগ্নিকান্ডে খামারসহ ১০টি গরু ভস্মিভূত হয়.....

শেখ হাসিনার হাত ধরে এসেছে নজির.....

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : চট্টগ্রামসহ সারাদেশে উন্নয়নের একমাত্র দাবিদার প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বল.....

গোবিন্দগঞ্জে সাড়ে চার কিলোমি.....

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাপমারা ইউনিয়নে সাড়ে চার কিলোমিটার রাস্তার ইউক্যালি.....

শেখ হাসিনার সরকারে আপত্তি নেই .....

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারে আপত্তি নেই জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের। তবে এই রাজ.....