• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ | ১০ ফাল্গুন, ১৪২৫

স্বর্বশান্ত বহু পরিবার কোটি টাকা নিয়ে উধাও এনজিও সিয়াম!

স্বর্বশান্ত বহু পরিবার কোটি টাকা নিয়ে উধাও এনজিও সিয়াম!

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি : গ্রাহকের কোটি কোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের বেসরকারী একটি সংস্থা “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন”। “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন” এ রাখা টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ায় এলাকার অনেক নারী-পুরুষ এখন স্বর্বশান্ত। টাকার দুঃশ্চিন্তায় এখন অনেকের পথে বসার জোগাড় হয়েছে বলেও মত স্থানীয়দের। বেশী লাভের আশায় “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন” এ অনেক টাকা জমা স্থানীয় লোকজন রাখার কারণেই অনেকটা লোভে পড়েই টাকা নিয়ে উধাও হয়েছে “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন” এর পরিচালক মাসুদ রানা বলে ধারণা করা হচ্ছে। জানা গেছে, ২০০৭ সালে “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন” নামে একটি বেসরকারী এনজিও অফিস করে কাজ শুরু করে মাসুদ রানা। চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহর, সদর উপজেলার বারঘরিয়া ইউনিয়নের লক্ষিপুর, লাহারপুর, মহারাজপুর, নাচোলের বেশ কিছু স্থানের লোকজনকে বেশী লাভে টাকা রাখার একটি প্রতারণার জাল তৈরী করে “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন” এর পরিচালক মাসুদ রানা। সাধারণ ব্যাংকের চেয়ে কয়েকগুন বেশী লাভ পাওয়ার কথা ভেবে সাধারণ মানুষও তার কথায় সাঁই দিয়ে তার “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন” এর লক্ষ লক্ষ টাকা জমা রাখে। প্রতরণা পাকাপোক্ত করতে নতুন নতুন গ্রাহকদের মাস পেরিয়ে গেলেই সময়মত লাভের টাকা পৌছে দিতো প্রতারক মাসুদ। প্রতারক মাসুদ রানার কথার জাদুতে ভুলে অনেকেই চাকুরী থেকে অবসরে যাওয়া টাকাও মাসুদের এনজিও “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন” এ রাখতে কোন সন্দেহ করেনি কোনভাবে। অনেক পরিবার নিজের জমানো পুরো টাকাটাই বিশ্বাস করে জমা রেখেছিলো পরিচালক মাসুদ রানা “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন” এ। কিন্তু দিনে দিনে সে টাকার পরিমান বেড়ে প্রায় ৭০ থেকে ৭৫ কোটি টাকা হবে বলে বিভিন্ন স্থানের সুত্রে জানা গেছে। সেই জমানো কোটি কোটি টাকা গ্রাহকদের সাথে প্রতারণা করেন স্ব-পরিবারের বিদেশে পাড়ি দেয় কয়েকদিন আগে। বিষয়টি জানাজানি হয় শনিবার বিভিন্ন স্থানে মাসুদ লাভের টাকা না দিতে আসায়। খবর নিতে গিয়ে টাকা জমা দেয়া গ্রাহকরা জানতে পারে মাসুদ পালিয়েছে। মুহুর্তের মধ্যেই চারিদিকে ছাড়িয়ে মাসুদের পালানোর বিষয়টি। অনেক গ্রাহকই অসুস্থ হয়ে পড়ে এবং পাগলপ্রায় হয়ে প্রলাপ বকতে শুরু করে। বর্তমানে “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন” এর সকল অফিসেই তালা ঝুলছে। পরিবার নিয়ে গা-ঢাকা দিয়েছে ফাউন্ডেশনের অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও। “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন” এর প্রধান অফিসে ধর্ণা দিচ্ছে গ্রাহকরা।  সরেজমিনে সিয়ামের অফিসগুলোতে গিয়ে জানা যায়, শতাধিক গ্রাহক তাদের জমা দেয়া টাকা নেয়ার জন্য ভীড় জমিয়েছে। স্থানীয় আকবর আলী জানান, সিয়ামের কর্মী বাড়ি গিয়ে তার এক বোনের কাছ থেকে প্রতিমাসে ২ হাজার টাকা করে লাভ দেবার কথা বলে প্রথমে ১ লাখ টাকা এবং পরে আরও ২ লাখ টাকা জমা দিয়ে মোট ৩ লাখ টাকা জমা দেয়। শনিবার সে টাকার লভ্যাংশ দেবার কথা ছিল। কিন্তু লাভের টাকা দিতে না আসায় খোজ হয় মাসুদের। এভাবেই বারঘরিয়ায় হাজার হাজার মানুষ আজ পথে বসে বসার উপক্রম হয়েছে। লক্ষিপুর গ্রামের মো. আজম আলী জানান, লক্ষিপুরসহ আশেপাশের বিভিন্ন এলাকার যেসব মানুষ মাসুদ রানার কাছে প্রতারণার শিকার হয়ে তার অফিস ও বাড়িতে ভীড় জমাচ্ছে, সেসব মানুষের হাহাকারে বাতাস ভারী হয়ে আসছে। এক একজন বৃদ্ধ মানুষের কান্না ও গড়াগড়ি দেখে স্থানীয় মানুষ হতবাক। এসব মানুষদের শান্তনা দেয়ারও কোন কর্মকর্তা নেই। সাধারণ মানুষ শুধু আফসোষ করা ছাড়া আর কোন কথা বলতে পারছেন না। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জিয়াউর রহমান পিপিএম জানান, “সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশন” এর ম্যানেজার শুক্রবার থানায় তাদের পরিচালকের নিখোঁজের অভিযোগ জমা দিয়েছে। তদন্ত করার পরই সকল ঘটনার বিস্তারিত বলা সম্ভব হবে। তবে খোজ নিয়ে জানা গেছে, সিয়ামের লোকজন অফিস বন্ধ করে সকলে পালিয়ে গেছে। স্থানীয় যারা সিয়ামে কাজ করত তারাও পরিবার নিয়ে নিরাপদ স্থানে সরে গেছে। বর্তমানে সিয়ামের প্রতিটি ইউনিট কার্যালয়ে তালা ঝুলছে। এ ব্যাপারে সিয়াম শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক মো. মাসুদ রানার সাথে মুঠোফোনে (০১৭৪৪-১১০০২০) নম্বরে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

মহান একুশে ফেব্রুয়ারি আজ .....

‘আমার ভায়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি/ আমি কি ভুলিতে পারি’— না, বাঙালি জাতি ভোলেনি পূর্বপুরুষের মহা.....

পিতার লাশের অপেক্ষায় দুই যমজ .....

এইচ এম কাওসার আহমেদ ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএর ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। কাজ করতেন চুড়িহাট্টায় এক ফা.....

প্রতি বছর বাড়ছে আট লাখ বেকার: স.....

গত ১০ বছরে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে অনেক উন্নয়ন হলেও কর্মসংস্থান প্রবৃদ্ধি মূল চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ফলে প্র.....

শুধু খামখেয়ালিতে ভাড়া করা বিম.....

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কর্মকর্তাদের খামখেয়ালিপনায় ইজিপ্ট এয়ার থেকে লিজ নেয়া নষ্ট দুটি উড়োজাহাজের পে.....

পুলিশের হাতে নিরীহ মানুষ যেন হ.....

পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পুলিশের হাতে যেন কোনো নিরীহ মানুষ হয়রানি শ.....

বাংলাদেশ নিয়ে মিথ্যা সংবাদ, মি.....

সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে মিয়ানমারের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রকাশ করায় বাংলাদেশে .....

বাংলাদেশ দুর্নীতিতে বিশ্বে ১.....

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল (টিআই)-এর দুর্নীতির ধারণা সূচক অনুযায়ী বাংলাদেশে দুর্নীতি বেড়েছে। শীর্ষ .....

বিশ্বের শীর্ষ ১০০ চিন্তাবিদদ.....

রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বিশ্বের শীর্ষ ১০০ চিন্তাবিদের তালিকায় স্থান পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ‘প.....

টিআইবির বক্তব্য প্রত্যাখ্যান.....

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল (টিআইবি) যে গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ত.....

প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষর জালে.....

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বাক্ষর হুবহু জাল করে কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে চক্রের মূলহোতা হেলাল উদ্দিনস.....

নতুন মন্ত্রি পরিষদে স্থান পেল.....

নতুন মন্ত্রিপরিষদ শপথ গ্রহণ করবে আগামীকাল। তাই এরই মধ্যে যারা মন্ত্রিসভায় স্থান পাচ্ছেন তাদের নাম ঘোষণা কর.....

আবার থ্রি-জি ও ফোর-জি বন্ধের নি.....

আজ থেকে ভোটের দিন পর্যন্ত মোবাইল ইন্টারনেটের থ্রিজি-ফোরজি সেবা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ.....