• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২ | ১ ভাদ্র, ১৪২৯

১৬ই ডিসেম্বরে অবৈধ পত্রিকার বিজ্ঞাপন ফর্মের হিড়িক!

১৬ই ডিসেম্বরে অবৈধ পত্রিকার বিজ্ঞাপন ফর্মের হিড়িক!

ইসমাইল হোসেন, স্টাফ রিপোর্টার: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ ও জাতির কল্যাণে ব্যাপক উন্নয়ন করে চলেছেন এবং বাংলাদেশকে ডিজিটাল করে জাতির কাছে উপহার দিয়েছেন। যার ধারাবাহিকতায় উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে বাংলাদেশ। সম্প্রতি কিছু সংখ্যক অসাধু দালাল চক্রের দ্বারা অর্থনীতি ধ্বসের মুখে পড়ার উপক্রম হয়েছে। অসাধু দালাল ও তথাকথিত নামধারী সাংবাদিকদের চাঁদাবাজী ও বিজ্ঞাপন বাণিজ্যের দৌরাত্ব দিন দিন বেড়েই চলেছে। যার ফলশ্রতিতে ভুঁইফোড় সাপ্তাহিক, পাক্ষিক, মাসিক নামে বিভিন্ন পত্রিকায় সয়লাব আমাদের এই দেশ।

প্রকৃত বিজ্ঞাপন প্রতিনিধিদের অবজ্ঞা করে কিছু ব্যাংক-বীমা সরকারি-বেসরকারি প্রকল্পগুলোর কর্মকর্তারা অর্থ লোভে পড়ে এই সমস্ত ভুঁইফোড় পত্রিকার প্রতিনিধি নামক দালাল চক্রের কাছে বিজ্ঞাপন ও তার অর্থ ভাগাভাগি করে নেওয়াতে মূলধারার পত্রিকার বিজ্ঞাপন প্রতিনিধিগণ বঞ্চিত হচ্ছেন। গোটা বিশ্বে এখন সকলেই জানেন বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর ওয়েবসাইটের মাধ্যমে তাদের সকল তথ্য একমূর্হুতেই পাওয়া সম্ভব। ধারাবাহিকতায় দেশে ডিজিটালের ছোয়া থাকলেও ডিজিটাল গতিতে দেশকে এগিয়ে না নিয়ে করা হচ্ছে এর অপব্যবহার।

পত্রিকার মিডিয়া বা ডিক্লারেশন আছে কিনা সে তথ্য পাওয়া যায় ডিসি অফিসের ওয়েবসাইটে। তবে তা যাচাই বাছাই না করে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রকল্প বিজ্ঞাপন দিয়ে আসছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। পত্রিকার ডিক্লারেশন এর কপি না দেখিয়ে বেশ কিছু সাপ্তাহিক, পাক্ষিক, মাসিক, ইচ্ছামত নাম দিয়ে বিভিন্ন নামে-বেনামি পত্রিকা বানিয়েও সংগঠনকে বিজ্ঞাপন দিয়ে আসছে ।

জানা যায়, ডিসি অফিস কর্তৃক কোন ডিক্লারেশন না নিয়েই বেশ কিছু বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি পুরুষ এবং মহিলারা ট্রেড লাইসেন্সের মাধ্যমে একাউন্ট করে হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা। এতে যেমন ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন প্রকৃত প্রতিষ্ঠানগুলো ঠিক তেমনি বাংলাদেশ সরকারও রাজস্ব হারাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। যে প্রতিনিধিরা নাম লিখতে কলম ভাঙ্গেন পাঁচটি তারা হয়েছেন সম্পাদক ও প্রকাশক এবং ছদ্ধ নামে পত্রিকা প্রকাশ করে আসছেন, যা কিনা প্রশাসনের নাকের ডগাতেই হচ্ছে।

তবে প্রশাসন বলছেন সু-নির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকায় এদের বিরুদ্ধে সঠিক কোনো আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা যাচ্ছে না। মাঝে মধ্যে দু-একটি এ ধরনের ঘটনা ঘটলেও পরবর্তীতে প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় এরা বেড়িয়ে এসে আবারো এধরনের অবৈধ কর্মকান্ডে লিপ্ত হচ্ছেন বলে জানা যায়। এসমস্ত বিজ্ঞাপন প্রতিনিধিরা প্রতিষ্ঠানের কিছু লোককে ম্যানেজ করে বিজ্ঞাপন নিয়ে নিচ্ছেন। উক্ত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও কর্তা বাবুরা সরকারি নিবন্ধন ছাড়াই পত্রিকায়  বিজ্ঞাপন দিয়ে আসছে। এভাবেই সরকারি সম্পদ নষ্ট করা হচ্ছে দিনের পর দিন। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্তা বাবুরা জানেন, ডিজিটাল বাংলাদেশে বর্তমানে অফিসে বা বাসায় বসে ওয়েবসাইটের মাধ্যমেই যে কোনো প্রতিষ্ঠানের সকল তথ্য জানা যায়।

সেগুলি পর্যবেক্ষন না করেই কিসের আশায় অবৈধ পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়ে সরকারি সম্পদ নষ্ট করছেন তা জানার প্রশ্ন সচেতন মহলসহ প্রকৃত সাপ্তাহিক, পাক্ষিক, মাসিক পত্রিকার সম্পাদক প্রকাশকদের। মিডিয়াকে কলঙ্কিত করছেন নারী পুরুষ মিলে ২০ থেকে ২৫ জন বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি। অবৈধ পত্রিকার মালিক সাজিয়ে অন্তরালে চলছে বাণিজ্য। সম্প্রতি, ডিসি অফিসে কিছু পত্রিকার নামে অনুসন্ধান করতে গিয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন কর্মকর্তা বলেন, যে পত্রিকার নাম দিয়েছেন এগুলো ডিসি অফিস থেকে কোন ডিক্লারেশন নেয় নি। ডিসি অফিসের এই কর্মকর্তা আরো বলেন, এ নামে আমাদের কোন ডিক্লেয়ারেশন দেওয়া হয় নি।

যারা এভাবে নিজেদের নামে পত্রিকা প্রকাশ করছেন তারা সম্পূর্ণ অবৈধভাবে প্রকাশ করছেন। এ সকল বিজ্ঞাপন প্রতিনিধিদের বিষয়ে আগেও আমাদের কাছে অভিযোগ এসেছে। কোনো লিখিত অভিযোগ আসলে আমরা এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেব। জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, আমাদের কাছে একটা অভিযোগ এসেছে আমরা এ বিষয়ে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছি।

আইন প্রয়োগকারী সংস্থার একজন জানান, আমরা বিষয়টি গুরুত্বসহকারে দেখছি। অনেকগুলো বিজ্ঞাপনের আবেদন ফরম উদ্ধার করেছি। বিভিন্ন ব্যাংক থেকে এ বিষয়ে তদন্ত চলছে। আমরা অনেকগুলো ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার সংগ্রহ করেছি। তবে এটা নিশ্চিত থাকুন আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব। বেশি কিছু এখন বলা যাবেনা। ব্যবস্থাপকের স্বাক্ষর জাল করে বিজ্ঞাপনে হরিলুট? বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন এর উদ্যোগ প্রকল্পের ব্যবস্থাপকের স্বাক্ষর জাল করে বিজ্ঞাপন নিয়ে হাতিয়ে নিয়েছে লক্ষ লক্ষ টাকা। এতে এখন পর্যন্ত কোন প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি কেনো জানতে চায় সাপ্তাহিক পত্রিকা সম্পাদক পরিষদ।

পূর্বে যে প্রতিষ্ঠান থেকে বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছে তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ! যে প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি নারী-পুরুষসহ যারা বিজ্ঞাপন নিয়ে অবৈধ পত্রিকায় ছাপিয়ে বিল দিয়েছেন সেগুলি অরিজিনাল কি না ডিসি অফিস কর্তৃক নিবন্ধনের কাগজ পত্র আছে কি না যাচাই-বাছাই করে বিল পরিশোধ করবেন করার জন্য অনুরোধ। ওরা সাংবাদিক! অবৈধ পত্রিকার ভিজিটিং কার্ড ও আইডি কার্ড বানিয়ে ব্যাংক-বীমাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করে এবং প্রকল্পে ভিজিটিং কার্ড, একটি আইডি কার্ড বানিয়ে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে প্রবেশ করেন।

প্রবেশ করার পরে তারা কাধে ঝোলানো ব্যাগ থেকে বিজ্ঞাপন ফরম বের করে। তারপর বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে বিজ্ঞাপন নিয়ে আসেন ভুয়া বিজ্ঞাপন প্রতিনিধিরা। অবৈধ পত্রিকা শনাক্ত করার উপায়: সকল ব্যাংক-বীমা, সরকারি-বেসরকারি, সাহিত্য শাসিত এবং প্রকল্পে যেখান থেকে বিজ্ঞাপন নিয়ে আসেন ওই পে-অর্ডার গুলির নাম্বার দিয়ে শনাক্ত করা সম্ভব কোন ব্যাংক ক্লিয় নিয়ে গেছে কোন শাখায় গেছে। সেই শাখায় গিয়ে এই একাউন্ট ফরমটি বের করলে অবৈধ সম্পাদক-প্রকাশক সনাক্ত করা সম্ভবপর হবে।

সাপ্তাহিক পত্রিকা পরিষদের এক সদস্য বলেন, এই নারী-পুরুষরা ট্রেড লাইসেন্স দিয়ে অবৈধ পত্রিকা বের করেন। আমরা প্রকৃত মালিকগণ এবং সম্পাদক-প্রকাশকেরা বিপদে আছি।  এত কষ্ট করে ডিসি অফিস থেকে নিবন্ধন নিয়ে কি করলাম? যদি ট্রেড লাইসেন্স দিয়ে পত্রিকা বের করা যেত, তাহলে প্রতিটি ঘরে ঘরে একটি করে পত্রিকা প্রকাশ করতে পারতাম। সংশ্লিষ্ট মহলের বক্তব্য, এই অবৈধ পত্রিকা যারা করেছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া না হলে আমাদেরকে সারা জীবন ধুকে ধুকে মরতে হবে। বিভিন্ন ব্যাংক, বীমাসহ বিভিন্ন প্রকল্প সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এই ১৬ ডিসেম্বর ডিসপ্লে বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকেন কিন্তু কোন পত্রিকা বৈধ-অবৈধ তা যাচাই-বাছাই করে বিজ্ঞাপন প্রদান করা একান্ত জরুরী।

তথ্য অধিকার আইনে সকল প্রতিষ্ঠানকে তথ্য দিতে হবে: যদি কোন অবৈধ পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেওয়া হয় তাহলে তথ্য অধিকার আইনে তথ্য চাওয়া হবে। যদি প্রমাণিত হয় অবৈধ পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়েছেন তাদের জন্য আইনগত ব্যবস্থার নেওয়া হবে। আমাদের অনুসন্ধানে উঠে আসে ভুঁইফোড় পত্রিকার প্রায় ৩১টি বিজ্ঞাপন প্রতিনিধিদের নাম যা ধারাবাহিক প্রতিবেদনের অংশ হিসেবে প্রকাশ করা হবে।

চকবাজারে অগ্নিকাণ্ড : হোটেলের মালিক গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক ।।  পুরান ঢাকার চকবাজারের কামালবাগ দেবীদ্বারঘাটে প্লাস্টিক গুদামে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ভবনে.....

বাংলাদেশ বিমান বাহিনী মহিলা কল্যাণ সমিতি কর্তৃক বঙ্গবন্ধু'র শাহাদত বার্ষিকী পালন

আইএসপিআর ।। বাংলাদেশ বিমান বাহিনী মহিলা কল্যাণ সমিতি (বাফওয়া) কর্তৃক সোমবার (১৫ আগস্ট) বাংলাদেশের স্বাধীনতা.....

জাতির পিতার শাহাদত বার্ষিকীতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন

লাখোকণ্ঠ ডেস্ক :  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদৎ বার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে.....

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি: ব্যাখ্যা দিতে জ্বালানি বিভাগকে মন্ত্রিসভার নির্দেশ

লাখোকণ্ঠ প্রতিবেদন ।।  জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির বিষয়ে বিস্তারিতভাবে ব্যাখ্যা দিতে জ্বালানি বিভাগকে .....

প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের প্রাক্কালে বড় নদী চুক্তির সম্ভাবনা

লাখোকণ্ঠ ডেস্ক : নদী নিয়ে বড় চুক্তি করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ এবং ভারত। এ মাসের শেষ দিকে বাংলাদেশ ও ভারতের পানিসম্.....

স্বাধীনতা সংগ্রামে বঙ্গমাতার নেপথ্য ভূমিকা তুলে ধরলেন প্রধানমন্ত্রী

লাখোকণ্ঠ অনলাইন :  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে বঙ্গমাতার নেপথ্য ভূমিকা তুলে ধ.....

বঙ্গবন্ধুর অনুপ্রেরণা ও উদ্দীপনার উৎস ছিলেন বঙ্গমাতা: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ।।  স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন, মহীয়সী নারী ব.....

ঢাকা থেকে বিভিন্ন রুটে ভাড়ার তালিকা প্রকাশ করল বিআরটিএ

নিজস্ব প্রতিবেদক ।।  দেশে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির কারণে বিভিন্ন রুটে বাস-মিনিবাসের ভাড়া পুনঃনির্ধার.....

বঙ্গবন্ধু আমাদের স্বাধীন বাংলাদেশ দিয়ে গেছেন; শেখ হাসিনা দিচ্ছেন অর্থনৈতিক মুক্তি: বাণিজ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, এমপি বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙ্গালী .....

বিশ্ববাজারে তেলের দাম কমছে

লাখোকণ্ঠ অনলাইন ।।  বিশ্ববাজারে তেলের দাম কমেছে। আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দর হ্রাস পেয়ে গত সপ্ত.....

কমেছে লঞ্চ ভাড়া, ডেকে ১০০ টাকা, কেবিনে ৬০০

নিজস্ব প্রতিবেদক ।।  পদ্মা সেতু চালুর পর ঢাকা-বরিশাল নৌরুটের লঞ্চগুলোতে ব্যাপক যাত্রী সংকট দেখা দিলেও ধীর.....

‘আন্তর্জাতিক শান্তি পুরস্কার’ পেল বাংলাদেশ

অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থা ডি-৮ এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হিসেবে বাংলাদেশ ‘আন্তর্জাতিক শান্তি পুরস্কার.....