• ঢাকা
  • শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯

সেই লজ্জাবতী বানর সুস্থ হয়ে ফিরলো জঙ্গলে

সেই লজ্জাবতী বানর সুস্থ হয়ে ফিরলো জঙ্গলে

মোঃ ইব্রাহিম শেখ খাগড়াছড়ি থেকেঃ একদল শিকারির তীক্ষ্ণ চোখে ধরা পড়ে একটি লজ্জাবতী বানর।শিকারির লাঠির আঘাতে আহত বন্য প্রাণিটি হয়তো একপর্যায় পোষা প্রাণীর খাঁচায় বন্দি কিংবা আহারহতো।কিন্তু নাহ! শেষ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বনের প্রাণী বনেই ফিরে গেল।খাগড়াছড়ির জেলা সদরের পেরাছড়া ইউনিয়নের বেলতলি এলাকার বাসিন্দা কুনাল ত্রিপুরা সুস্থ করে গভীরজঙ্গলে ছেড়ে দিয়েছেন। আর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই কাজ ছড়িয়ে পড়ায় প্রশংসা করছেন অনেকে।কুনাল ওই এলাকার ত্রিদ্বিপ রায় ত্রিপুরার ছেলে।  

জানা যায়, গত ৪ মার্চ বেলতলি গ্রামের জঙ্গলে একদল শিকারি শিকার করতে যায়। তাদের জালে লজ্জাবতীবানরটি ধরা পড়ে। লাঠির আঘাতে আহত লজ্জাবতী বানরটি নিয়ে ফিরছিলেন। এ সময় কুনাল দুই হাজার টাকাদিয়ে লজ্জাবতী বানরটি কিনে নেন। পরে এক মাস নিজ বাসায় সেবা করে আহত প্রাণীটি সুস্থ করে তোলেন। সুস্থহওয়ায় শনিবার (২৩ এপ্রিল) সকালে কুনাল গভীর জঙ্গলে প্রাণীটি ছেড়ে দেন তিনি। বিষয়টি জানাজানি হওয়ারপর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের প্রশংসা কুড়ায় তিনি।কুনাল জানান, শিকারিদের আহত প্রাণীটি ছেড়ে দেওয়ার জন্য বললে তারা অপারগতা প্রকাশ করে। প্রাণীটিবিক্রি করতে না পারলে খেয়ে ফেলার কথা জানায়। বিষয়টি আমার মাকে জানালে তাঁর পরামর্শে শেষ পর্যন্তদুই হাজার টাকায় প্রাণীটি কিনে নিয়ে আসি। বাসার সবাই দীর্ঘদিন প্রাণীটি সেবাযত্ন করে পুরোপুরি সুস্থ করেতুলি। আজ গভীর জঙ্গলে প্রাণীটি ছেড়ে দিয়েছি।  

খাগড়াছড়ি পরিবেশ সুরক্ষা আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক মুহাম্মদ আবু দাউদ বলেন, পাহাড়ে যেবন্য প্রাণী ছিল। দিনে দিনে তা কমে আসছে। প্রতিদিন কোথাও না কোথাও শিকারিদের জালে নানা প্রাণী আটকাপড়ছে। এমন পরিস্থিতিতে কুনাল ও তাঁর পরিবারের প্রাণীর প্রতি এমন ভালোবাসা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবিরাখে।  বন্য প্রাণীতে ভরপুর প্রাকৃতিক পরিবেশ ধরে রাখতে আমাদের সচেতন হওয়া উচিত।

পদ্মা ও মেঘনা নামে নতুন বিভাগ করার সিদ্ধান্ত স্থগিত

লাখোকণ্ঠ অনলাইন ।।  কুমিল্লা ও ফরিদপুর অঞ্চলের জেলাগুলো নিয়ে ‘পদ্মা’ ও ‘মেঘনা’ নামে নতুন দুই বিভাগ ক.....

আবাদি জমি রক্ষায় পরিকল্পিত শিল্পায়নের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক ।।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি নিশ্চিত করতে আবাদি জমি রক্ষায় পরিকল্পিত&.....

সংকট সমাধানে যুবকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে: প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক ।।  সংকট সমাধানে যুবকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ.....

জাতীয় যুবদিবস ২০২২ উপলক্ষ্যে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগ

অনলাইন ডেস্ক || আগামীকাল ১ নভেম্বর (মঙ্গলবার) যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে দেশব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি ব.....

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে বিদায় ও বরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক ।।  প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আমিনুল ইসলাম খানের বিদায় ও নবনিযুক্ত স.....

দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় প্রতিটি বাহিনীকে দক্ষ করে গড়ে তোলা হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তাঁর সরকার দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় প্রতিটি বাহ.....

চিকিৎসার জন্য জার্মান ও যুক্তরাজ্যের উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রপতির ঢাকা ত্যাগ

অনলাইন ডেস্ক : রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও চোখের চিকিৎসার জন্য জার্মানি ও যুক্তরাজ্যে ১৬ .....

সাকিবকে আর অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ব্যবহার করবে না দুদক

অনলাইন ডেস্ক ।।  ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে আর দুদকের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ব্যবহার করা হবে না। আ.....

পায়রা সমুদ্রবন্দরে আগামীকাল বেশ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল পায়রা সমুদ্রবন্দরে আরও ভালো সুযোগ-সুবিধাসহ এর সুষ্ঠু কার্.....

চীন কখনো মুসলমানদের বিরুদ্ধে কাজ করে না : রাষ্ট্রদূত লি

অনলাইন ডেস্ক ।।  বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং বলেছেন, এই অঞ্চলে উন্নয়ন, শান্তি ও স্থিতিশীল.....

রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে তীব্র যানজট

স্টাফ রিপোর্টার ।। ভোগান্তির আরেক নাম রাজধানীর বিমানবন্দর সড়ক। সামান্য বৃষ্টি হলেই গাজীপুরের টঙ্গী থেকে গ.....

ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং : দেশে ১৩ জনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক ।।  ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং আজ ভোরে বরিশাল-চট্টগ্রাম উপকূল অতিক্রম করার ফলে বাংলাদেশের ছয় জেলায় অ.....