• ঢাকা
  • বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২ | ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯

বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স এ শিক্ষকদের এমপিও দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি।

বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স এ শিক্ষকদের এমপিও দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি।

আব্দূল বাতেন, লাখোকণ্ঠ প্রতিনিধি: সম্মত নিয়োগ প্রাপ্ত 

দেশের বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্স স্তরের পাঁচ হাজার ছয়শত শিক্ষকের এমপিওভুক্তির দাবিতে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছে বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশন। ১৬ মে, সকাল ১০টা থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন শিক্ষকরা।   

বাংলাদেশ বেসরকারি অর্নাস মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশন এর সভাপতি হারুন - অর- রশিদ জানান,বেসরকারি কলেজে অনার্স-মাস্টার্স স্তরে বিধি মোতাবেক নিয়োগপ্রাপ্ত সারা দেশে সাড়ে পাঁচ হাজার শিক্ষককে জনবলে অন্তর্ভুক্তি না থাকার অজুহাতে দীর্ঘ ২৯ বছর ধরে সরকারি সুযোগ-সুবিধার বাইরে রাখা হয়েছে। প্রতিষ্ঠান থেকে শতভাগ বেতন দেওয়ার কথা থাকলেও বেশিরভাগ কলেজ কর্তৃপক্ষ তা আমলে নেয় না। করোনাকালে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায়, নামমাত্র বেতনটুকুও বন্ধ থাকায় শিক্ষকরা মানবেতর জীবন-যাবপন করেছে, এখনও করছেন।একই প্রক্রিয়ায় নিয়োগ পেয়ে সদ্য জাতীয়করণ করা কলেজের অনার্স-মাস্টার্স কোর্সের শিক্ষকরা ক্যাডার বা নন-ক্যাডারভুক্ত হয়েছেন, ডিগ্রি তৃতীয় শিক্ষকরা জনবলে না থাকার পরেও এমপিওভুক্ত হয়েছেন, হচ্ছেন। অপরদিকে কামিল (মাস্টার্স) শ্রেণির শিক্ষকরাও এমপিওভুক্ত হয়েছেন। অথচ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকরা এনটিআরসিএ সনদধারী হয়েও জনবল ও এমপিও নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত না থাকায় এমপিওভুক্ত হতে পারছেন না, যা চরম বৈষম্য এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পরিপন্থী। 

সারাদেশে থেকে প্রায় ২৫০০ শিক্ষক এই অবস্থান কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে, তারা আরো জানান, ‘দীর্ঘ ২৯ বছর ধরে পেশাগত দাবি আদায়ের জন্য অনেক শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করার পরেও অদ্যাবধি শিক্ষকরা সরকারি বেতন-ভাতা থেকে বঞ্চিত রয়েছেন। বর্তমান শিক্ষাবান্ধব সরকারের মাধ্যমে শিক্ষা সেক্টরের অনেক বৈষম্য কমেছে। কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় যে, উচ্চশিক্ষায় নিয়োজিত দেশের সাড়ে পাঁচ হাজার শিক্ষক এখনও এমপিওভুক্তির বাইরে রয়েছেন।

ফেডারেশন এর সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল জানান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একাধিক নির্দেশনা, শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত নবম ও দশম সংসদের স্হায়ী কমিটির সুপারিশ এবং জাতীয় শিক্ষানীতির কৌশল বাস্তবায়নের জন্য এসব শিক্ষককে এমপিওভুক্ত করা অত্যন্ত যৌক্তিক ছিল। এসব শিক্ষককে এমপিও দিতে প্রতিমাসে ১২ কোটি বছরে বছরে ১৪৪ কোটি টাকার বাজেটে ব্যয় বরাদ্দ প্রয়োজন। জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত করে এই বরাদ্দ দিলেই সম্ভব, কিন্তু তা করা হচ্ছে না। আমরা চাই, জনবল কাঠামো সংশোধন করে, অথবা বিশেষ ব্যবস্থায় এমপিওভুক্ত করা হোক। এমপিও ঘোষণার আশ্বাস না পাওয়া পর্যন্ত আমরা লাগাতার অস্থান কর্মসূচি চালিয়ে যাবো।’

পদ্মা ও মেঘনা নামে নতুন বিভাগ করার সিদ্ধান্ত স্থগিত

লাখোকণ্ঠ অনলাইন ।।  কুমিল্লা ও ফরিদপুর অঞ্চলের জেলাগুলো নিয়ে ‘পদ্মা’ ও ‘মেঘনা’ নামে নতুন দুই বিভাগ ক.....

আবাদি জমি রক্ষায় পরিকল্পিত শিল্পায়নের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক ।।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি নিশ্চিত করতে আবাদি জমি রক্ষায় পরিকল্পিত&.....

সংকট সমাধানে যুবকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে: প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক ।।  সংকট সমাধানে যুবকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ.....

জাতীয় যুবদিবস ২০২২ উপলক্ষ্যে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগ

অনলাইন ডেস্ক || আগামীকাল ১ নভেম্বর (মঙ্গলবার) যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে দেশব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি ব.....

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে বিদায় ও বরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক ।।  প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আমিনুল ইসলাম খানের বিদায় ও নবনিযুক্ত স.....

দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় প্রতিটি বাহিনীকে দক্ষ করে গড়ে তোলা হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তাঁর সরকার দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় প্রতিটি বাহ.....

চিকিৎসার জন্য জার্মান ও যুক্তরাজ্যের উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রপতির ঢাকা ত্যাগ

অনলাইন ডেস্ক : রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও চোখের চিকিৎসার জন্য জার্মানি ও যুক্তরাজ্যে ১৬ .....

সাকিবকে আর অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ব্যবহার করবে না দুদক

অনলাইন ডেস্ক ।।  ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে আর দুদকের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ব্যবহার করা হবে না। আ.....

পায়রা সমুদ্রবন্দরে আগামীকাল বেশ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল পায়রা সমুদ্রবন্দরে আরও ভালো সুযোগ-সুবিধাসহ এর সুষ্ঠু কার্.....

চীন কখনো মুসলমানদের বিরুদ্ধে কাজ করে না : রাষ্ট্রদূত লি

অনলাইন ডেস্ক ।।  বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং বলেছেন, এই অঞ্চলে উন্নয়ন, শান্তি ও স্থিতিশীল.....

রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে তীব্র যানজট

স্টাফ রিপোর্টার ।। ভোগান্তির আরেক নাম রাজধানীর বিমানবন্দর সড়ক। সামান্য বৃষ্টি হলেই গাজীপুরের টঙ্গী থেকে গ.....

ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং : দেশে ১৩ জনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক ।।  ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং আজ ভোরে বরিশাল-চট্টগ্রাম উপকূল অতিক্রম করার ফলে বাংলাদেশের ছয় জেলায় অ.....