• ঢাকা
  • শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩ | ১৫ মাঘ, ১৪২৯

শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যা: আট মাসে ৩৬৪ জনের মৃত্যু, শীর্ষে ঢাকা

শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যা: আট মাসে ৩৬৪ জনের মৃত্যু, শীর্ষে ঢাকা

অনলাইন ডেস্ক: চলতি বছর জানুয়ারি থেকে আগস্ট পর্যন্ত আট মাসে ৩৬৪ জন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। এর মধ্যে ১৯৪ জনই স্কুলগামী। ১৩ থেকে ২০ বছর বয়সীদের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি, যা মোট আত্মহত্যার ৭৮.৬ শতাংশ।

গতকাল শুক্রবার আঁচল ফাউন্ডেশন আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

‘বেড়েই চলেছে শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যার হার : আমাদের উদ্বিগ্ন হওয়া কতটা জরুরি?’ শীর্ষক এক সমীক্ষাবিষয়ক প্রতিবেদনে তারা এ তথ্য প্রকাশ করে। সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে এ সমীক্ষা প্রতিবেদন তৈরি করা হয়।প্রতিবেদন অনুযায়ী, উল্লিখিত আট মাসের প্রতি মাসে গড়ে ৪৫ জনের বেশি শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। ৩৬৪ জন আত্মহত্যাকারীর মধ্যে স্কুলগামী ৫৩.৩০ শতাংশ। দ্বিতীয় অবস্থানে কলেজ শিক্ষার্থীরা। তারা সংখ্যায় ৭৬ জন, যা ২০.৮৮ শতাংশ। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের মধ্যে আত্মহননকারীর সংখ্যা ৫০, যা ১৩.৭৪ শতাংশ। আত্মহননকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে মাদরাসায় অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীও রয়েছে। তারা ৪৪ জন, যা ১২.০৯ শতাংশ।

শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যায় শীর্ষে ঢাকা বিভাগ। ঢাকায় গত আট মাসে ২৫.২৭ শতাংশ শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। চট্টগ্রাম বিভাগে এই হার ১৬.৪৮ শতাংশ এবং খুলনা বিভাগে ১৪.০১ শতাংশ। রংপুর বিভাগে আত্মহত্যাকারী শিক্ষার্থী ৮.৭৮ শতাংশ। বরিশাল বিভাগে ৯.৬২ শতাংশ, ময়মনসিংহ বিভাগে ৭.৪২ শতাংশ এবং রাজশাহী বিভাগে ১৪.০১ শতাংশ। সিলেট বিভাগে তুলনামূলকভাবে কম শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে, যা ৪ শতাংশ।

আত্মহত্যায় নারী শিক্ষার্থী বেশি। তারা ২২১ জন বা ৬০.৭১ শতাংশ। পুরুষ শিক্ষার্থী ১৪৩ জন বা ৩৯.২৯ শতাংশ।

শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৫০ জন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী। এর মধ্যে পুরুষ শিক্ষার্থী ৬০ শতাংশ এবং নারী শিক্ষার্থী ৪০ শতাংশ। কলেজপড়ুয়া আত্মহত্যাকারী ৭৬ জন। এর মধ্যে ৪৬.০৫ শতাংশ পুরুষ ও ৫৩.৯৫ শতাংশ নারী। স্কুলগামী শিক্ষার্থীরা আত্মহত্যায় ওপরে। তারা ১৯৪ জন। এর মধ্যে ৩২.৯৯ শতাংশ পুরুষ ও ৬৭.০১ শতাংশ নারী। মাদরাসার শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৪৪ জন আত্মহত্যা করেছে। এর মধ্যে ৩৯.২৯ শতাংশ পুরুষ ও ৬০.৭১ শতাংশ নারী।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৩ থেকে ২০ বছর বয়সীদের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি, যা ৭৮.৬ শতাংশ। ২১ থেকে ২৬ বছর বয়সীদের মধ্যে ১৩.৪৬ শতাংশ শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছেন।    ১৩ বছরের নিচে যাদের বয়স, তারাও এই পথ থেকে পিছপা হয়নি। ছয় থেকে ১২ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৭.৯৭ শতাংশ, অর্থাৎ ২৯ জন আত্মহত্যা করেছে। ১৪ থেকে ১৬ বছরের কিশোর-কিশোরী সবচেয়ে বেশি আত্মহত্যা করেছে, যার সংখ্যা ১৬০।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, সবচেয়ে বেশি, অর্থাৎ ২৫.২৭ শতাংশ শিক্ষার্থী প্রেমঘটিত কারণে আত্মহত্যা করেছে।    অভিমান করে আত্মহত্যা ২৪.৭৩ শতাংশ। পরিবারের সঙ্গে চাওয়া-পাওয়ার অমিল হওয়ায় আত্মহত্যা করেছে ৭.৪২ শতাংশ। পারিবারিক কলহ থেকে আত্মহত্যা ৬.৫৯ শতাংশ।

ধর্ষণ বা যৌন হয়রানি থেকে আত্মহত্যা ৪.৬৭ শতাংশ। মানসিক সমস্যা থেকে ৬.৫৯ শতাংশ। পড়াশোনার চাপে ০.৮২ শতাংশ, সেশনজটের কারণে হতাশায় ০.৮২ শতাংশ এবং পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ায় ১.৯২ শতাংশ।

চুরির মিথ্যা অপবাদে ১.৬৫ শতাংশ, আর্থিক সমস্যায় ১.৯২ শতাংশ, বন্ধুর মৃত্যুতে বিষাদগ্রস্ত হয়ে আত্মহত্যা ০.৫৫ শতাংশ। বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় ও স্বামী পছন্দ না হওয়ায় আত্মহত্যা ১.১০ শতাংশ। তবে ১৫.৯৩ শতাংশের আত্মহননের কারণ জানা যায়নি।

আত্মহত্যার পেছনে সাইবার অপরাধও রয়েছে। আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও মোবাইলে ধারণের মাধ্যমে ব্ল্যাকমেইলের শিকার হয়ে আত্মহত্যার করেছে চার শিক্ষার্থী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে আত্মহত্যা করে আটজন। ভিডিও কলে এসে আত্মহত্যা করেছে দুজন। সেলফি ক্যামেরা নিজের দিকে তাক করে আত্মহত্যা ০.২৭ শতাংশ প্রেমিক যুগলের। চিরকুট বা সুইসাইড নোট লিখে আত্মহত্যা করেছে আটজন।

ভার্চুয়াল সম্মেলনে আঁচল ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি তানসেন রোজ বলেন, আবেগ নিয়ন্ত্রণ করতে না পারা আত্মহত্যার অন্যতম বড় কারণ। শিক্ষার্থীরা পরিবার থেকে কোনো কিছু না পেয়ে অভিমান করেও আত্মহত্যা করেছে।  

তিনি বলেন, সাত বছরের একশিশুও আত্মহত্যা করেছে। যার আত্মহত্যা বোঝার বয়স হয়নি। তার আত্মহত্যার পেছনের কারণগুলোও বিশ্লেষণ করে শিশু অবস্থা থেকেই শিক্ষার্থীদের মনোবল শক্ত করার বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লিনিক্যাল সাইকোলজি বিভাগের অধ্যাপক কামাল উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী বলেন, উদ্বেগজনক হারে আত্মহত্যা বেড়ে যাওয়ার পেছনের কারণগুলো খুঁজে বের করে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে।

শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যা রোধ ও মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষায় আঁচল ফাউন্ডেশনের ১০টি প্রস্তাব

আত্মহত্যা মোকাবেলায় বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে একটি টাস্কফোর্স গঠন, পাঠ্যপুস্তকে মানসিক শিক্ষাকে এবং মনের যত্নের কৌশলগুলোকে বাস্তবায়ন করা, অভিভাবক সমাবেশের আলোচিত সূচিতে শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্য ও আত্মহত্যা সম্পর্কিত এজেন্ডা রাখতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা, সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মনোরোগ বিশেষজ্ঞ নিয়োগ করা, প্রাথমিক মানসিক স্বাস্থ্য প্রশিক্ষণ, সহশিক্ষা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ বৃদ্ধি ও বাস্তবায়ন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভ্রাম্যমাণ ক্যাম্পেইন পরিচালনা, অনলাইনে হতাশা-আপত্তিকর ছবি-আত্মহত্যার লাইভ স্ট্রিমিং, জীবননাশের পোস্ট চিহ্নিত করতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিশেষ টুলস ব্যবহার করা, পরিবার ও পরিচিতজনদের দায় অনুসন্ধানে আইনি বাধ্যবাধকতা থাকা এবং মানসিক স্বাস্থ্যসেবা দ্রুত ও সহজলভ্য করতে একটি টোল ফ্রি জাতীয় হটলাইন নম্বর চালু করা।

জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক ডা. হেলালউদ্দিন আহমেদ বলেন, আত্মহত্যা প্রতিরোধে এককভাবে কাউকে দায়িত্ব দেওয়া সম্ভব নয়। এ ব্যাপারে পরিবার, প্রতিষ্ঠান ও সমাজকে একযোগে কাজ করতে হবে। যেকোনো একটিতে গুরুত্ব দিলে হবে না। পরিবারের  পরিবেশ ভালো রাখা হলো, কিন্তু দেখা গেল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গিয়ে বুলিং হচ্ছে। তা যেন না হয়। পাশাপাশি শুধু শিশুর শারীরিক বিকাশ নয়, তার মানসিক বিকাশেও যত্নশীল হতে হবে।

জাটকা ও মা মাছ নিধন বন্ধে আরও বেশি মোবাইল কোর্ট পরিচালনার আহ্বান মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রীর

রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জেলাপ্রশাসক সম্মেলন। ছবি-লাখোকন্ঠ

লাখোকন্ঠ প্রতিবেদন: মৎস্য ও প্রাণ.....

অনিবন্ধিত পোর্টাল ও আইপিটিভির গুজব বড় চ্যালেঞ্জ : তথ্যমন্ত্রী

ছবি - ইন্টারনেট

লাখোকন্ঠ প্রতিবেদন: অনিবন্ধিত অনলাইন পোর্টাল, আইপিটিভি ও ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে গুজ.....

‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বিনির্মাণের প্রধান হাতিয়ার ডিজিটাল সংযোগ : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা-২০২৩ এর উদ্বো.....

পদোন্নতি পেয়ে ৪ জন অতিরিক্ত আইজিপি

বাঁ থেকে- জামিল আহমদ, ওয়াই এম বেলালুর রহমান, মীর রেজাউল আলম ও মো. হুমায়ুন কবির

লাখোকন্ঠ প্রতিবেদন: বাংলাদ.....

সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কাস্টমসকে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখতে হবে : রাষ্ট্রপতি

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। ছবি : পিআইডি লাখোকন্ঠ প্রতিবেদন: রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সুখী-সমৃদ্ধ ও উন্নত একটি .....

রমজানে শক্ত ব্যবস্থা নেবেন, ডিসিদের উদ্দেশে বাণিজ্যমন্ত্রী

জেলা প্রশাসক সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন দুপুরে বাণিজ্যমন্ত্রী। ছবি-সংগৃহিত

লাখোকন্ঠ প্রতিবেদন: রমজানে দ্র.....

বাঙালির পেট ঠাণ্ডা, মাথাও ঠাণ্ডা: খাদ্যমন্ত্রী

ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে খাদ্য ও কৃষি মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ডিসিদের সেশনের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে খাদ্যম.....

রাষ্ট্রপতি নির্বাচন ১৯ ফেব্রুয়ারি

ইসি ভবনে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। ছবি সংগ.....

এলসি খোলার সংকট শিগগিরই স্বাভাবিক হবে: গভর্নর

ছবি : ইউএনবি  

লাখোকন্ঠ প্রতিবেদন: সামনে রমজান মাসে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ নিশ্চিত.....

সব নাগরিককে পেনশনের আওতায় আনতে বিল পাশ

ছবি-জাতীয় সংসদ

লাখোকন্ঠ প্রতিবেদন: দেশের সব নাগরিককে পেনশনের আওতায় আনতে জাতীয় সংসদে বিল পাশ হয়েছে। মঙ্.....

'বিরোধীদল বলেছে ইভিএমে খরচ বেশি, এটা বন্ধ করে দিয়েছি'

 ছবি-সংগৃহিত

লাখোকন্ঠ প্রতিবেদন: দেড়শ আসনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে ভোট নেওয়ার প্রকল্প বাদ দেওয়ার বিষ.....

ডিসিদের ২৫ দফা নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে জেলা প্রশাসক সম্মেলনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা.....