Ad: ০১৭১১৯৫২৫২২
২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ || ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন আদালত
  3. আইন শৃংখলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি অর্থনীতি
  6. খেলাধূলা
  7. চাকরি-বাকরি
  8. জাতীয়
  9. জীবনের গল্প
  10. ধর্ম
  11. নির্বাচনী হাওয়া
  12. ফিচার
  13. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  14. বিনোদন
  15. রাজধানী
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চরনারচর ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ৭০ বস্তা চাল চুরি অভিযোগ

বার্তা কক্ষ
এপ্রিল ১৯, ২০২৩ ৪:৫৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার চরনারচর ইউনিয়নে ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে জনগনের মাঝে সরকারের বরাদ্দকৃত ২৩.৫ মেট্রিক টন ভিজিএফ এর চাল বিতরণের কথা। কিন্তু গত ১৩ই এপ্রিল ২৩.৫ মেট্রিক টন চাল খাদ্যগুদাম থেকে উত্তোলন করে মানুষের মাঝে বিতরণের আগেই ৭০ বস্তা চাল অন্যত্র বিক্রির অভিযোগ উঠেছে পরিষদের চেয়ারম্যান পরিতোষ রায়ের বিরুদ্ধে।

সরকারী নীতিমালা অনুযায়ী যেদিন চাল বন্টন করা হবে সেদিন সরকারী কর্মকর্তা ট্যাগ অফিসারের উপস্থিতিতে খাদ্যগুদাম থেকে চালগুলো উত্তোলন করে পরিষদে এনে সাধারন জনগনের মাঝে বণ্টনের কথা থাকলেও নীতিমালা লংঘন করে চেয়ারম্যান পরিতোষ রায় কালোবাজারে বিক্রির দুরবিসন্ধিতে চালগুলো উত্তোলন করে নিয়ে আসেন বলে অভিযোগ সাধারন মানুষের।

এ ঘটনায় সোমবার সকাল থেকেই চাল বিতরন ও অন্যত্র গোপনে চালবিক্রির খবরে ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের সাধারন অসহায় গরীব মানুষগুলো ভিড় জমান পরিষদের সামনে। বাকি চালগুলো ইউনিয়ন পরিষদের পাশে নদীতে নৌকার মাঝে চাল থাকা অবস্থায় চেয়ারম্যানকে পরিষদের একটি কক্ষে অবরুদ্ধ করে বিভিন্ন ধরনের শ্লোগান দিকে থাকেন সাধারন মানুষজন। তবে নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করে ৭০ বস্তা প্রধানমন্ত্রীর উপহারের চাল চুরির সত্যতা পেয়েছেন এবং চেয়ারম্যানকে জনগনের রোষানল থেকে উদ্ধার করেন। এর আগে চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে বিষয়টিকে ধামাচাপা দেয়ার প্রানান্তর চেষ্টা করা হয়েছিল। এমন চাল চুরির খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সুনামগঞ্জ ও দিরাই উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা ছুটে যান ঘটনাস্থলে ।

খবর পেয়ে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরীর নির্দেশে দিরাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার,এসিল্যান্ডসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে ইউপি সদস্য ও সাধারন লোকজনের সাথে কথা সত্যতা পান বলে জানা যায়। স্থানীয় জনগন ও পরিষদের ইউপি সদস্য সূত্রে জানা যায়,এছাড়াও পরিতোষ রায় নিজেকে সরকারী দলের দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা দাবী করলেও তিনি সাম্প্রতিক ইউপি নির্বাচনে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে দলীয় শৃংখলা ভঙ্গ করে পরিতোষ রায় চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্রপ্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্ধীতা করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। চেয়ারম্যান হিসেবে শপথ নেয়ার পর থেকেই তিনি সরকারী দলের লেবাসে ক্ষমতার অপব্যবহার করে পরিষদের নির্বাচিত ৪জন ইউপি সদস্য যথাক্রমে ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য তরুণ কান্তি তালুকদার(বকুল),৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সুধারঞ্জন তালুকদার(সুমন),৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন ও ৭.৮ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্যা প্রনতি রানী দাসকে ইউনিয়নের উন্নয়নের কর্মকান্ডে অংশগ্রহনের সুযোগ না দিয়ে চেয়ারম্যান পরিতোষ রায় তার মনগড়া ও পছন্দের কয়েকজন ইউপি সদস্যকে সাথে রেখে সবসময় তাদের পছন্দের জনগনের মাঝে বিভিন্ন সময়ের বরাদ্দকৃত অনুদান ও সহায়ত বন্টন করে আসছেন এমন অভিযোগ বঞ্চিত পরিষদের ৪জন ইউপি সদস্যদের।

এনিয়ে ইতিমধ্যে বঞ্চিত ৪জন ইউপি সদস্য ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য তরুণ কান্তি তালুকদার(বকুল),৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সুধারঞ্জন তালুকদার(সুমন),৮নং ওয়ার্ডেও ইউপি সদস্যমোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন ও ৭.৮ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্যা প্রনতি রানী দাস দিরাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে চেয়ারম্যান পরিতোষ রায়ের বিরুদ্ধে অনিয়ম,র্দূনীতি ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ এনে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য তরুণ কান্তি তালুকদার(বকুল) ২০০ শত বস্তা গরীব জনগনের চাল চেয়ারম্যান পরিতোষ রায় অন্যত্র বিক্রি করে দিয়েছেন এবং তা আজ তদন্তে প্রমানিত হয়েছে। তাছাড়া আমরা ৪জন ইউপি সদস্যকে বাদ দিয়ে বিভিন্ন সময় সরকারের বরাদ্দকৃত ভিজিডি,ভিজিএফ এর চালসহ বিভিন্ন ধরনের আসা অনুদান কিভাবে জনগনের মাঝে বন্টন হবে তা আমাদের সাথে পরিষদে আমাদেরকে নিয়ে কোন মিটিং না করেই চেয়ারম্যানের পছন্দের কয়েকজন ইউপি সদস্যদের নিয়ে দূনীতির আশ্রয় নিয়ে পছন্দেন অনুগত মানুষের মাঝে বন্টন করে যাচ্ছেন।ইতিমধ্যে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দিরাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে লিখিত অভিযোগ ও দিয়েছেন বলে তিনি জানান।

তিনি চেয়ারম্যানের অনিয়ম আর দূনীতির বিষয়গুলো সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান। এ ব্যাপারে চরনারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পরিতোষ রায়ের সাথে একাধিববার যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

এ ব্যাপারে দিরাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহমুদুর রহমান মামুন জানান,আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে চাল চুরির সত্যতা প্রমানিত হয়েছে তাই চেয়ারম্যানকে ক্লোজ করা হবে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।

এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরী জানান, এমন খবর পেয়েই দিরাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থলে গিয়েছেন উনি রিপোর্ট দিলেই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।



এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।