Ad: ০১৭১১৯৫২৫২২
২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ || ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন আদালত
  3. আইন শৃংখলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি অর্থনীতি
  6. খেলাধূলা
  7. চাকরি-বাকরি
  8. জাতীয়
  9. জীবনের গল্প
  10. ধর্ম
  11. নির্বাচনী হাওয়া
  12. ফিচার
  13. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  14. বিনোদন
  15. রাজধানী
আজকের সর্বশেষ সবখবর

প্রধান শিক্ষককে পেটানোর অভিযোগ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে

বার্তা কক্ষ
ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২৩ ১২:০৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

চাঁদা না পেয়ে মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার ধূলশুড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. তানজিদ মাহমুদ ইসলাম রবিনের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের এক প্রধান শিক্ষককে লাঠি দিয়ে পেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গত শুক্রবার থানায় মামলা করেছেন ভুক্তভোগী ওই শিক্ষক।

ওই শিক্ষকের নাম মো. আলতাফ হোসেন খান (৫৪)। তিনি উপজেলার ইব্রাহিমপুর ঈশ্বরচন্দ্র উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

এজাহার এবং বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের নামে প্রধান শিক্ষক আলতাফ হোসেন খানের কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিলেন ছাত্রলীগ নেতা তানজিদ মাহমুদ ইসলাম রবিন। তবে টাকা দিতে অস্বীকার করলে ছাত্রলীগ নেতা প্রধান শিক্ষকের ওপর ক্ষিপ্ত হন। গত বৃহস্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বেলা তিনটার দিকে মোটরসাইকেলে করে বিদ্যালয়ের কম্পিউটার ল্যাব অপারেটর শুভ্র দত্তকে নিয়ে প্রধান শিক্ষক উপজেলা সদরে অগ্রণী ব্যাংকে যাচ্ছিলেন। পথে মোহনপুর এলাকায় মোটরসাইকেলের সামনে এসে গতিরোধ করেন ছাত্রলীগ নেতা তানজিদসহ তার ছয় থেকে সাতজন সহযোগী। এ সময় তারা প্রধান শিক্ষক আলতাফ হোসেনকে মারধর করে ও লাঠি দিয়ে পেটায়। এ সময় তাকে রক্ষা করতে গেলে কম্পিউটার অপারেটর শুভ্র দত্তকেও মারধর করা হয়।

এ সময় শিক্ষকের পাঞ্জাবির পকেট থেকে ৫ হাজার ৫০০ টাকা, হাতঘড়ি ও মুঠোফোন সেট হাতিয়ে নিয়ে হামলাকারীরা সেখান থেকে চলে যান। পরে স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে হাসপাতালে তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী প্রধান শিক্ষক বাদি হয়ে ওই ছাত্রলীগ নেতা তানজিদ মাহমুদ ইসলাম রবিনসহ তাঁর ছয় সহযোগীকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন। গত বৃহস্পতিবার  হামলার সঙ্গে জড়িত এজাহারভুক্ত নয়ন নামের এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

প্রধান শিক্ষক আলতাফ হোসেন বলেন, ছাত্রলীগ নেতা তানজিদ তার বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র। অনুষ্ঠানের নামে বিভিন্ন সময় তানজিদ তার কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিল। এ ছাড়া বিদ্যালয়ের সীমানাপ্রাচীরের বাইরে ঝালমুড়ি বিক্রেতাকে বসতে বলা হয়। এসব নিয়ে ক্ষিপ্ত হন তানজিদ ও তার সহযোগীরা তাকে কিলঘুষি ও লাঠি দিয়ে পেটায়।

অভিযোগের বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা তানজিদ মাহমুদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তার মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

এ ব্যাপারে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এম এ সিফাত কুরাইশী ওরফে সুমন বলেন, শিক্ষকের ওপর ছাত্রলীগের কেউ যদি হামলা করে থাকলে দল থেকে তাকে বহিস্কার করা হবে।

হরিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার আদিত্য বলেন, শিক্ষকের ওপর হামলার ঘটনায় তানজিদ মাহমুদসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় এক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।



এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।