Ad: ০১৭১১৯৫২৫২২
২৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ || ১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন আদালত
  3. আইন শৃংখলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি অর্থনীতি
  6. খেলাধূলা
  7. চাকরি-বাকরি
  8. জাতীয়
  9. জীবনের গল্প
  10. ধর্ম
  11. নির্বাচনী হাওয়া
  12. ফিচার
  13. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  14. বিনোদন
  15. রাজধানী
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কুষ্টিয়ায় অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে নৌ পুলিশের বিশেষ অভিযান

নিউজ রুম
নভেম্বর ২৫, ২০২৩ ৫:২৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সামরুজ্জামান (সামুন), কুষ্টিয়া: নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরা বন্ধে বিশেষ অভিযান চালিয়েছে নৌ পুলিশ। পাবনার পাকশী থেকে কুমারখালীর শিলাইদহ পর্যন্ত পদ্মা নদীতে অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরার অপরাধে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নৌ পুলিশের পুলিশ সুপার (এসপি) রুহুল খানের নেতৃত্বে শুক্রবার (২৪ অক্টোবর) দুপুরের দিকে এ বিশেষ অভিযান পরিচালিত হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঈশ্বরদী লক্ষীকুন্ডা নৌ থানা পুলিশের (ওসি) এমদাদ হোসেন।

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার পাকশী থেকে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর শিলাইদহ পর্যন্ত পদ্মা নদীর পাকশী, তালবাড়িয়া, রূপপুর, রানাখড়িয়া, হরিপুর পয়েন্ট বিশেষ অভিযান হয়। এসময় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অপরাধে আসাদুল শেখ (৫০) ও তার ছেলে আশিক ইসলামকে (২২) আটক করা হয়। অভিযানে কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরার অপরাধে রেজাউল প্রামানিককে (৫২) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ সময় পদ্মা নদী থেকে একটি ড্রেজার নৌকা, একটি কাঠের নৌকা এবং ৩০০ মিটার কারেন্ট জাল উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার রেজাউল প্রামানিককে (৫২) কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার কল্যাণপুর এলাকার মৃত রেজওয়ান আলী প্রামানিকের ছেলে, আসাদুল শেখ (৫০) কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার রানাখড়িয়া পশ্চিম পাড়া এলাকার মৃত শুকুর আলী শেখের ছেলে এবং আসাদুল শেখের ছেলে আশিক ইসলাম (২২)।

এসময় তাদের ব্যবহৃত ড্রেজার নৌকা, ইঞ্জিনচালিত একটি কাঠের নৌকা ও কারেন্ট জাল উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন নৌ পুলিশ। আশিক, সইদুল ও রেজাউল প্রামানিককে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঈশ্বরদী লক্ষীকুন্ডা নৌ থানা পুলিশের (ওসি) এমদাদ হোসেন বলেন, নদীতে অবৈধভাবে কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরা ও বালু উত্তোলনের অপরাধে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে ও কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরা বন্ধ রাখতে পাকশী থেকে শিলাইদহ পর্যন্ত বিশেষ অভিযান পরিচালিত হয়েছে।

অভিযানে রানাখড়িয়া এলাকায় পদ্মা নদী হতে দেশীয় তৈরি বাংলা ড্রেজার দ্বারা অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হয়। অবৈধভাবে উত্তোলনের ফলে রূপপুর, পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রিজ, রানাখড়িয়া গ্রাম সহ আশপাশ এলাকায় পদ্মা নদীর তীর সংরক্ষন বাধ ও ফসলি জমিতে ব্যাপক নদী ভাঙ্গনের দেখা দেয়। বিষয়টির গুরুত্ব বিবেচনা করে নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে নৌ পুলিশের অভিযান অব্যাহত থাকবে।



এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।