Ad: ০১৭১১৯৫২৫২২
২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ || ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন আদালত
  3. আইন শৃংখলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি অর্থনীতি
  6. খেলাধূলা
  7. চাকরি-বাকরি
  8. জাতীয়
  9. জীবনের গল্প
  10. ধর্ম
  11. নির্বাচনী হাওয়া
  12. ফিচার
  13. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  14. বিনোদন
  15. রাজধানী
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রোজার স্বাস্থ্যগত উপকারিতা

বার্তা কক্ষ
মার্চ ২৫, ২০২৩ ২:০২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ধর্ম ডেস্ক: সারা বিশ্বের মুসলিমগন রমজান মাসে দীর্ঘ এক মাস আল্লাহর নির্দেশনা পালনে সাওম পালন করে থাকেন।আল্লাহ পবিত্র কোরআনে বলেন- ” হে ঈমানদারগন তোমাদের উপর রোজা ফরজ করা হয়েছে, যেমনি করে তোমাদের পূর্ববর্তী লোকদের উপর ফরজ করা হয়েছিল, যাতে তোমরা পূন্য অর্জন করতে পারো।”
রোজার মাধ্যমে আধ্যাত্মিকতা অর্জন ছাড়াও এতে রয়েছে বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমানিত অনেক স্বাস্থ্যগত উপকারিতা। জাপানের বিজ্ঞানী ইউশিনোরি ওহসোমি রোজার উপকারিতা গবেষণার মাধ্যমে প্রমান সাপেক্ষে নোবেল পুরষ্কার লাভ করেন। মেডিকেল সাইন্স রোজার যেসকল উপকারিতা বর্ননা করেছে তাদের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো হল-
১.রোজা পরিপাকতন্ত্রকে বিশ্রাম দেয়, যেহেতু রোজার কারনে সাড়াদিন কোন আহার করতে হয়না, তাই এর মাধ্যমে gastrointestinal tract বিশ্রাম নিয়ে পুনরায় হজমক্রিয়া শুরু করতে পারে।
২.রোজা উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। রোজা রাখার ফলে শরীরে সঞ্চিত ফ্যাটের ভাঙন হয় এবং তা শক্তি প্রদান করে। তাই রক্তে cholesterol, TG ইত্যাদির মাত্রা কমে, ফলে উচ্চ রক্তচাপ, স্ট্রোক, হ্রদরোগের ঝুঁকি কমে।
৩.রোজা পালনের মাধ্যমে রক্তে শর্করা কমতে সাহায্য করে। কেননা, দিনের বেলায় অগ্নাশয় কিঞ্চিত বিশ্রাম নেয়, ফলে পুনরায় ইনসুলিন হরমোনের নিঃসরন ক্রিয়া স্বাভাবিকভাবে শুরু করে।
৪. সাওম পালন শরীরের অতিরিক্ত চর্বি ও ওজন হ্রাস পেতে সহায়তা করে। ফলে স্থুলতার ঝুকি কমে।
৫. সাওম ব্রত পালন মানুষের মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখার পাশাপাশি বদ অভ্যাস ( ধূমপান, মদ্যপান ইত্যাদি) প্রশমিত করতে সাহায্য করে।
৬. আমাদের শরীরে বহিরাগত যেসকল toxic materials এর অনুপ্রবেশ ঘটে, তা লিভার, কিডনি ইত্যাদি অংগে গিয়ে নিষ্ক্রয় হয় ও দেহ হতে নির্গত হয়। এই প্রক্রিয়াকে detoxification বলে। রোজার মাধ্যমে detoxification প্রক্রিয়া বৃদ্ধি পায়, ফলে immune system উন্নত হয়।
৭. রোজা মারাত্মক শারীরিক প্রদাহ, ঘা, বাত ইত্যাদি কমাতে সাহায্য করে।
৮.রোজা মস্তিষ্ক ক্রিয়ার উন্নতি সাধন করে এবং neurodegenerative disease প্রতিরোধ করে।
৯. মানবদেহের মৃতকোষ, toxic উপাদান ইত্যাদি দেহ হতে বের করে দেয়া ও নতুন কোষ তৈরির প্রক্রিয়াটিকে “Autophagy” বলে। রোজার মাধ্যমে এই প্রক্রিয়া বৃদ্ধি পায়, ফলে তা cancer এর ঝুকি কমায়।

তাই দীর্ঘ একমাস সিয়াম সাধনের জন্য পুষ্টিকর খাদ্যাভ্যাসের বিকল্প নেই, এক্ষেত্রে যে সকল খাদ্য নির্দেশিকা পালন করা উচিত—
** ইফতার ও সেহেরি উভয়ই খেতে হবে।
** ইফতার খেজুর ও পানি দিয়ে শুরু করা উচিত।
** ইফতারে অতিরিক্ত ভাজাপোড়া এবং পোড়া তেলে রান্না খাবার খাওয়া বর্জন করা উচিত। অন্যথায় এসিডিটি, পেট ফাপা, কোষ্টকাঠিন্য ও অন্যান্য পেটের পীড়া দেখা দিতে পারে।
** পরিমিত পরিমানে পানি, ফল ইত্যাদি খেতে হবে। অন্যথায় urine problem, electrolyte imbalance ইত্যাদি দেখা দিতে পারে।
** অতিরিক্ত মসলাযুক্ত খাবার, সাদা চিনি ইত্যাদি কমাতে হবে।
** ভিটামিন সি যুক্ত দেশীয় ফল ( যেমনঃ পেয়ারা, লেবু, নাসপাতি), প্রানীজ প্রোটিন( যেমনঃডিম, মাছ, মাংস) ইত্যাদি খেতে হবে। এছাড়া দুধ ও দুগ্ধ সামগ্রি হতে যে কোন একটি খাবার ইফতার বা সেহেরিতে খেতে হবে।
** prebiotic এবং probiotic food ( যেমনঃ দই, তরমুজ, বাংগি, সজনে) ইত্যাদি খাদ্য উপকারী ব্যাকটেরিয়া বৃদ্ধি করে, তাই খাদ্য তালিকায় এসকল খাবার রাখা প্রয়োজন।
** অতিরিক্ত খাদ্যাভ্যাস পরিত্যাগ করা উচিত।
** সেহরিতে খেতে ইচ্ছে না হলেও সামান্য পরিমানে হলেও খেতে হবে।
** প্রতিদিন পরিমিত পরিমানে শাক-সব্জি খাওয়া প্রয়োজন।
এছাড়াও,

** immune system কে উন্নত করতে পরিমিত পরিমানে ঘুমেরও প্রয়োজন।



এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।