Ad: ০১৭১১৯৫২৫২২
২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ || ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন আদালত
  3. আইন শৃংখলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আবহাওয়া
  6. কৃষি অর্থনীতি
  7. খেলাধূলা
  8. চাকরি-বাকরি
  9. জাতীয়
  10. জীবনের গল্প
  11. ধর্ম
  12. নির্বাচনী হাওয়া
  13. ফিচার
  14. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  15. বিনোদন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মমেক হাসপাতাল চিকিৎসক-পুলিশ সংঘর্ষে আহত ১০, ইন্টার্নীদের কর্মবিরতি 

শাকিল
সেপ্টেম্বর ৭, ২০২৩ ৫:৫৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ  ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে ইন্টার্ণ চিকিৎসক ও পুলিশের সংর্ঘষের ঘটনা ঘটেছে। এতে দুই পুলিশ সদস্য ও আট ইন্টার্ণ চিকিৎসক আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় হাসপাতাল থেকে পুলিশ ফাড়ি সরিয়ে নিয়েছে পুলিশ। বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে হাসপাতালের পুরাতন ভবনের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে এই ঘটনা ঘটে।
ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. জাকিউল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, বুধবার রাত ১০ টার দিকে কক্সবাজার পুলিশ লাইনে কর্মরত এএসআই মাহমুদুল হাসান তার স্ত্রী নিলুফার ইয়াসমিনের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালের পুরাতন ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করে কর্তব্যরত চিকিৎসককে ডাকেন। তখন ওই চিকিৎসক অন্য রোগী দেখায় ব‍্যস্ত থাকায় সে পরে আসব বলে জানায়। এতে পুলিশের এএসআই মাহমুদুল হাসান ক্ষিপ্ত হয়ে চিকিৎসকের সাথে বাজে আচরণ করেন। এসময় দুই পক্ষের মাঝে তর্কাতর্কির একপর্যায়ে হাসপাতালে কর্মরত আনসার সদস্যরা ক্ষিপ্ত হয়ে তর্কে জড়িয়ে পড়ে।
এমন খবর পেয়ে হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে আসেন এবং ওয়ার্ডে অবস্থার অবনতি দেখে তিনি চিকিৎসা নিতে আসা এএসআই মাহমুদুল হাসানকে পুলিশের ক্যাম্পে নিয়ে যায়। পরে কয়েকজন ইন্টার্ণ চিকিৎসক পুলিশ ক্যাম্পে গেলে দুই পক্ষের মধ‍্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষে রুপ নেয়। এতে আট জন ইন্টার্ণ চিকিৎসক ও দুই পুলিশ আহত হয়। এর মাঝে ইন্টার্ণ চিকিৎসক ডা. শামীম রেজা ও ডা. সাদিককে গুরুতর আহত অবস্থায় আইসিইউতে ভর্তি করা হয়।
এদিকে এ ঘটনার পর রাতেই জেলা পুলিশ সুপার মাসুম আহমেদ ভুঁঞা ও ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. ইকরামুল হক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এসময় পুলিশ মাসুম আহমেদ ভুঁঞা ঘটনার সাথে জড়িত হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম ও এক পুলিশ সদস্য আরিফকে সাময়িক বরখাস্ত করেন।
এবিষয়ে কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহ কামাল আকন্দ জানান, এই ঘটনায় তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন পুলিশ সুপার। কমিটিকে তিন দিনের মাঝে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়ে বলা হয়েছে। তদন্তের পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। অপরদিকে ঘটনার পর দিন বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকালে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইন্টার্ণ চিকিৎসক পরিষদ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিন দিনের কর্ম বিরতি ঘোষণা করে।
ওই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বুধবার রাত ১০ টায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত ইনটার্ন চিকিৎসকের উপর রোগীর স্বজন এবং পুলিশ ক্যাম্পের কতিপয় বিপথগামী সদস্য কর্তৃক ন্যাক্কারজনক ও বর্বরোচিত হামলা করে। এর প্রতিবাদে আগামী তিন কার্যদিবস কর্মবিরতি পালন করবেন। এতে আরও বলা হয় যে, উল্লিখিত হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ উক্ত ঘটনার সুষ্ঠ সমাধান প্রদানে ব্যর্থ হলে পরবর্তীতে কঠোর পদক্ষেপ গৃহীত হবে।
এবিষয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. গোলাম ফেরদৌস বলেন, হাসপাতালে অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে। এনিয়ে হাসপাতালের ইন্টার্ণ চিকিৎসকরা কর্ম বিরতি পালন করেছেন। এতে সাময়িক সমস্যা হলেও হাসপাতালের পোষ্টেট চিকিৎসকরা সেবা অব‍্যাহত রেখেছেন।



এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।