Ad: ০১৭১১৯৫২৫২২
১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ || ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন আদালত
  3. আইন শৃংখলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আবহাওয়া
  6. কৃষি অর্থনীতি
  7. খেলাধূলা
  8. চাকরি-বাকরি
  9. জাতীয়
  10. জীবনের গল্প
  11. ধর্ম
  12. নির্বাচনী হাওয়া
  13. ফিচার
  14. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  15. বিনোদন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

জাতীয় পার্টির পছন্দের ৩ আসন

নিউজ রুম
ডিসেম্বর ১৪, ২০২৩ ৯:৫১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আবছার উদ্দিন অলি, চট্টগ্রাম : দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জমে উঠেছে রাজনীতির মাঠ। ভোটের দিন যত ঘনিয়ে আসছে জমজমাট হয়ে উঠছে নির্বাচনী হাওয়া। চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা সহ ১৬টি আসনের মধ্যে জাতীয় পার্টি চট্টগ্রামে ৩টি আসন পছন্দ করে জোটে তালিকা দিয়েছে বলে জাতীয় পার্টি সূত্রে জানা যায়।

চট্টগ্রামের ১৬টি আসনের মধ্যে ৩টি আসনে তাদের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। চট্টগ্রাম-১৬ বাঁশখালী আসনে মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী, চট্টগ্রাম-৫ হাটহাজারী আসনে ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, চট্টগ্রাম-৮ চান্দগাঁও-বোয়ালখালী আসনে সোলায়মান আলম শেঠ এই ৩ প্রার্থীকে জাতীয় পার্টি চট্টগ্রাম থেকে চায়। জাতীয় পার্টির অভ্যন্তরে মান-অভিমান আর ভোটের হিসেব নিকেশে শরীক জোটের ভাগ্য কোন দিকে যায় সেটিও দেখার বিষয় এবং এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

এর মধ্যে চট্টগ্রাম-৫ হাটহাজারী আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের হেভিওয়েট প্রার্থী উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ সালাম, চট্টগ্রাম-১৬ বাঁশখালী আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শিল্পপতি মুজিবুল হক সিআইপি, চট্টগ্রাম-৮ বোয়ালখালী-চান্দগাঁও আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ ও আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী মহানগর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ সিডিএ-এর সাবেক চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম প্রতিদ্বন্দিতা করছেন।

অন্য দিকে চট্টগ্রাম-৫ হাটহাজারী আসনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী এম এ সালামের প্রার্থীতা ঠিক রাখতে উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির নিকট চিঠি দিয়েছে। এ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য জাতীয় পার্টির ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে আলোচনা সমালোচনায় রয়েছে জাতীয় পার্টি। বিএনপি নির্বাচনে না আসাতে ভোটের রাজনীতিতে জাতীয় পার্টি এখন গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। কিন্তু জাতীয় পার্টির অভ্যন্তরীণ কোন্দল পার্টির আগামীর পথে এগিয়ে চলার ক্ষেত্রে জটিলতা সৃষ্টি হবে বলে রাজনীতিক বিশ্লেষকরা মতামত ব্যাখ্যা করেছেন। নির্বাচনী ট্রেন থেকে জাতীয় পার্টি সরে যাচ্ছে কিনা এমন সন্দেহ ঘুরপাক খাচ্ছে ভোটাদের মাঝে। এ অবস্থায় রাজনীতির মাঠে শেষ পর্যন্ত কারা কারা টিকে থাকবে সেটি দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে ১৭ ডিসেম্বর প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন পর্যন্ত।



এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।