Ad: ০১৭১১৯৫২৫২২
২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ || ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন আদালত
  3. আইন শৃংখলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আবহাওয়া
  6. কৃষি অর্থনীতি
  7. খেলাধূলা
  8. চাকরি-বাকরি
  9. জাতীয়
  10. জীবনের গল্প
  11. ধর্ম
  12. নির্বাচনী হাওয়া
  13. ফিচার
  14. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  15. বিনোদন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সরকার বিএনপিকে প্রতিহতের ঘোষণা দিয়েছে, এটা গর্বের : মির্জা আব্বাস

বার্তা কক্ষ
ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৩ ৩:০৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বিএনপি নেতাকর্মীরা দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলেছে বলে দাবি করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। তিনি বলেন, আর তাতে সরকার ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে। তাই সরকার বিএনপিকে প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়েছে। বিএনপির জন্য এর চাইতে গর্বের আর কিছু হতে পারে না।

বৃহস্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক প্রতিবাদ সমাবেশে এসব কথা বলেন মির্জা আব্বাস। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর মুক্তি দাবিতে এ সভার আয়োজন করে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলন নামে একটি সংগঠন।

বিএনপির নেতাকর্মীরা খুন-গুম, গ্রেপ্তারের ভয় পায় না বলে উল্লেখ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, আপনাদের (আওয়ামী লীগকে) প্রতিহত করার মতো শক্তি এবং সামর্থ্য বিএনপি রাখে।

তিনি বলেন, বিএনপি বলেছে- দানবীয় এই সরকারের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতে হবে। এখনো বলছি। আওয়ামী লীগের মুখে এ কথা মানায় না, লুটেরা সরকারের মুখে এ কথা মানায় না, রাতের ভোটের সরকারের মুখে এ কথা মানায় না, ভোট চোরের সরকারের মুখে কথা মানায় না। এ দেশকে আমরা হায়েনার হাত থেকে মুক্ত করব।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনে হওয়ার অবস্থা সংবিধানে নেই— আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের এই বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে মির্জা আব্বাস বলেন, আমরা বলতে চাই, নির্বাচন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই হতে হবে। কারণ তত্ত্বাবধায়ক সরকার এই সংবিধানেই ছিল। জামায়াত-আওয়ামী লীগের দাবিতে এই তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এই মুহূর্তে দরকার তত্ত্বাবধায়ক সরকার— এই দাবি ছিল জামায়াত এবং আওয়ামী লীগের। 

খালেদা জিয়াকে আজ স্মরণ করতে হয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, তিনি দেশকে ভালোবাসেন। তিনি পারতেন গোলাগুলি, খুনাখুনি করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে, কিন্তু সেটা করেননি। তত্ত্বাবধায়ক সরকার সংবিধানে সংযুক্ত করলেন। নির্বাচন দিলেন, সেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জয়লাভ করেছে। এরপর তারা ক্ষমতায় এসে সেই সংবিধান কাটাছেঁড়া করে বারোটা বাজিয়ে দিয়েছে। সংবিধান থেকে তত্ত্বাবধায়ক সরকার বাতিল করে দিয়েছে। এখন আবার বলছেন, সংবিধানের বাইরে কোনো নির্বাচন করার অবস্থা নেই। আমরাও বলতে চাই সংবিধানের বাইরে যেতে চাই না, আমরা চাই যে সংবিধানে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছিল, সেই সংবিধানই আপনারা করবেন। এখন যে সংবিধান আছে, সেটা নয়। যেই সংবিধানে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছিল, সেই সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে।

বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহসান, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস প্রমুখ।

  • বিষয় :


এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।